logo
বৃহস্পতিবার ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

  যাযাদি ডেস্ক   ১৩ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০  

খাশোগি হত্যার অডিও-ভিডিও আছে

মাকির্ন ও তুকির্ কমর্কতাের্দর দাবি

খাশোগি হত্যার অডিও-ভিডিও আছে
কনস্যুলেটে প্রবেশ করছেন জামাল খাশোগি
সৌদি আরবের নিখেঁাজ সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতর হত্যার স্বপক্ষে অডিও ও ভিডিও তুরস্কের কমর্কতার্রা পেয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্র ও তুরস্কের কমর্কতার্রা মাকির্ন প্রভাবশালী পত্রিকা ‘ওয়াশিংটন পোস্ট’র কাছে এমন দাবি করেছেন। তারা জানান, এসব ভিডিও ও অডিও দেখে-শুনে এটা স্পষ্ট, জামাল খাশোগিকে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতরে নিযার্তন ও হত্যা করা হয়েছে। সংবাদসূত্র : আল-জাজিরা

মাকির্ন ও তুরস্কের কমর্কতার্রা ওয়াশিংটন পোস্টকে জানান, ভিডিও রেকডির্ংয়ে দেখা যায়, গত ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে হেঁটে যাওয়ার পর খাশোগিকে সৌদির ঘাতক দল ঘিরে ফেলে। পরে তাকে হত্যা করা হয় এবং তার শরীর টুকরা টুকরা করা হয়।

তুকির্ নিরাপত্তা কমর্কতার্র বরাত দিয়ে মঙ্গলবার ‘নিউইয়কর্ টাইমস’ জানায়, সৌদি কনস্যুলেটের ভেতরে প্রবেশের দুই ঘণ্টার মধ্যে খাশোগিকে হত্যা করা হয়। সৌদি আরব থেকে ইস্তাম্বুলে গিয়ে ১৫ জনের একটি ঘাতক দল ওই হত্যা মিশনে অংশ নেয়। হত্যার পর করাত দিয়ে তার লাশ টুকরা টুকরো করা হয়। সৌদি আরবের শীষর্ রাজকীয় আদালতের নিদেের্শই এ হত্যা মিশন চালানো হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তুরস্কের কমর্কতার্রা ওয়াশিংটন পোস্টকে জানান, খাগোশির অডিওটি খুবই লোমহষর্ক। জামাল খাগোশিকে হত্যা মামলার তদন্ত ‘গোপনীয়’ উল্লেখ করে এক তুকির্ কমর্কতার্ নাম না প্রকাশ করার শতের্ ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেন, ‘কনস্যুলেটের ভেতরের ওই অডিও থেকে বোঝা যায়, জামাল ভেতরে প্রবেশ করার পর তার সঙ্গে কী ঘটেছে। আপনি তার কণ্ঠস্বর শুনতে পারবেন। আরবিতে কথা বলছেনÑ এমন লোকদের কণ্ঠ শুনতে পারবেন। আপনি শুনতে পারবেন, কীভাবে তাকে (খাশোগি) জেরা, নিযার্তন ও হত্যা করা হয়েছে।’ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেক কমর্কতার্ নিশ্চিত করেন, অডিও রেকডির্ংয়ে খাশোগিকে পেটানোর শব্দও শোনা যায়।

তবে তুরস্ক ও যুক্তরাষ্ট্রের কমর্কতার্রা কীভাবে এসব অডিও-ভিডিও রেকডির্ং হাতে পেয়েছেন, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তুরস্ক বরাবরই দাবি করে আসছে, সৌদি সরকারের সমালোচক ও লেখক খাশোগিকে ইস্তাম্বুলে দেশটির কনস্যুলেটের ভেতরে হত্যা করা হয়েছে। তাদের মতে, একটি একটি ‘পূবর্পরিকল্পিত হত্যা’। ভিডিওতে নিখেঁাজ হওয়ার দিন খাশোগি কোথায় কোথায় গিয়েছিলেন তাও দেখানো হয়েছে বলে জানায় ওয়াশিংটন পোস্ট। ভিডিওর একটি কপি দৈনিকটি হাতে পেয়েছে বলেও জানিয়েছে।

তুরস্ক এবং খাশোগির বাগদত্তার দাবি, তাকে কনস্যুলেট ভবনের ভেতরে হত্যা করার পর লাশ সরিয়ে ফেলা হয়েছে। তবে রিয়াদ এ অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে বলেছে, কিছুক্ষণ পরই খাশোগি কনস্যুলেট থেকে বেরিয়ে যান। কিন্তু তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান সৌদি আরব সরকারকে তাদের দাবির পক্ষে প্রমাণ দেয়ার আহŸান জানিয়েছেন।

এর আগে তুরস্কের কয়েকটি গণমাধ্যম সিসিটিভি ক্যামেরার কিছু ফুটেজ প্রকাশ করে খাশোগিকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেছিল। ওই ভিডিওতে দেখা যায়, সন্দেহভাজন কয়েকজন সৌদি গোয়েন্দা কমর্কতার্ ইস্তাম্বুলের বিমানবন্দর দিয়ে তুরস্কে প্রবেশ করছেন এবং বেরিয়ে যাচ্ছেন।

দীঘির্দন ধরে সৌদি রাজপরিবারের সঙ্গে কলামিস্ট খাশোগির উষ্ণ সম্পকর্ ছিল বলে জানায় ওয়াশিংটন পোস্ট। তবে সম্প্রতি তিনি বতর্মান সরকার এবং যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বেশ কিছু কাযর্কলাপের সমলোচনা করে কয়েকটি কলাম লিখেছেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে