logo
শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ০৬ জুন ২০২০, ০০:০০  

হাজারো মানুষের ঢল

নীরবতা-শ্রদ্ধায় ফ্লয়েড স্মরণ

বর্ণবাদ জনিত মহামারির বলি ফ্লয়েড, মন্তব্য তার আইনজীবীর বিক্ষোভে বাধার অভিযোগ ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মামলা

নীরবতা-শ্রদ্ধায় ফ্লয়েড স্মরণ
হাঁটু গেড়ে নীরবতায় ফ্লয়েডকে স্মরণ
৮ মিনিট ৪৬ সেকেন্ড সময় ধরে জর্জ ফ্লয়েডের ঘাড়ে হাঁটু চেপে রেখে তাকে হত্যা করেছিলেন শ্বেতাঙ্গ এক পুলিশ কর্মকর্তা। বৃহস্পতিবার তাই ফ্লয়েডের জন্য আয়োজিত স্মরণসভায় পালন করা হয় ৮ মিনিট ৪৬ সেকেন্ডের নীরবতা। এদিন মিনিয়াপোলিসের নর্থ সেন্ট্রাল বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত ওই সভায় ফ্লয়েডের আইনজীবী বেঞ্জামিন ক্রাম্প মন্তব্য করেন, 'বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া বর্ণবাদজনিত মহামারির বলি হয়েছেন ফ্লয়েড।' সংবাদসূত্র : বিবিসি, রয়টার্স

গত ২৫ মে মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের বৃহত্তম শহর মিনিয়াপোলিসে পুলিশি হেফাজতে হত্যার শিকার হন জর্জ ফ্লয়েড। একজন প্রত্যক্ষদর্শীর ধারণ করা ১০ মিনিটের ভিডিওতে দেখা গেছে, হাঁটু দিয়ে নিরস্ত্র ফ্লয়েডের গলা চেপে ধরে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন ডেরেক চাওভিন নামের এক শ্বেতাঙ্গ পুলিশ সদস্য। এই হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে যুক্তরাষ্ট্র।

ফ্লয়েডের মৃতু্যর পরদিন মঙ্গলবার ওই ঘটনায় জড়িত চার পুলিশ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করে পুলিশ বিভাগ। শুক্রবার হেনেপিন কাউন্টি অ্যাটর্নি মাইক ফ্রিম্যান বরখাস্ত পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেকের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ আনেন।

এদিকে, বৃহস্পতিবার ফ্লয়েডের স্মরণসভায় হাজারো মানুষের ঢল নামে। স্মরণ অনুষ্ঠানে শোকস্তুতি পাঠ করে শোনান নাগরিক অধিকার আন্দোলনের কর্মী রেভ আল-শার্পটন। আবেগঘন কণ্ঠে তিনি বলেন, ফ্লয়েডের এ ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রের সকল কৃষ্ণাঙ্গকেই প্রতিধ্বনিত করছে। তিনি বলেন, 'ফ্লয়েডের সঙ্গে যা হয়েছে তা এদেশে প্রতিদিন শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবাসহ মার্কিনিদের জীবনের প্রত্যেক ক্ষেত্রেই ঘটে।' শার্পটন আরও বলেন, 'আমাদের উঠে দাঁড়ানোর সময় এখনই। আমাদের ঘাড় থেকে আপনাদের হাঁটু সরান এ কথাটি বলার সময়ও এখন।' গোটা বিচারব্যবস্থায় পরিবর্তন না আসা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলেও জানান শার্পটন। সভায় ফ্লয়েডের আইনজীবী আরও বলেন, 'করোনা মহামারিতে ফ্লয়েড জীবন হারাননি। এটি অন্য এক মহামারি। বর্ণবাদ ও বৈষম্যের মহামারি তার জীবন কেড়ে নিয়েছে।'

অনুষ্ঠানে ফ্লয়েডের পরিবারের সদস্য, মিনেসোটা গভর্নর টিম ওয়ালজ, মিনেসোটা সিনেটর অ্যামি ক্লোবুচার ও মিনিয়াপোলিস মেয়র জ্যাকব ফ্রে উপস্থিত ছিলেন। ফ্লয়েডের ভাই ফিলোনিসে ফ্লয়েড জানান, তারা যখন ছোট ছিলেন, তখন পরিবারে খুব অভাব ছিল। তিনি বলেন, 'এত মানুষ আমার ভাইকে দেখতে এসেছে। এটা খুব বিস্ময়ের। সে কত মানুষের হৃদয় ছুঁয়ে গেছে।' আজ (শনিবার) ফ্লয়েডের জন্মস্থান নর্থ ক্যারোলাইনায় এবং সোমবার নিজ শহর হিউস্টনে স্মরণ অনুষ্ঠান হবে।

এদিকে, বৃহস্পতিবার ফ্লয়েড হত্যায় সহযোগিতাকারী তিন পুলিশ সদস্যকে প্রথমবারের মতো আদালতে হাজির করা হয়। ১০ লাখ ডলার মূল্যের মুচলেকা দিয়ে তাদের জামিন আবেদন মঞ্জুর করা হয়েছে। তবে তারা যদি তাদের কাছে থাকা বন্দুক জমা দেন এবং অন্য শর্ত পূরণ করেন, তবে সাত লাখ ৫০ হাজার ডলার দিয়ে তারা জামিন পাবেন। মূল আসামি ডেরেক চাওভিনকে সোমবার আদালতে হাজির করা হবে।

বিক্ষোভে বাধার অভিযোগ

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মামলা

অন্যদিকে, শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে বাধা দেওয়ার অভিযোগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মানবাধিকার সংগঠন 'দি আমেরিকান সিভিল লিবার্টিস ইউনিয়ন' (এসিএলইউ) বৃহস্পতিবার ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে নাগরিক অধিকার হরণের মামলা করেছে।

পুলিশি হেফাজতে হত্যার শিকার হন জর্জ ফ্লয়েড। ওই হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে যুক্তরাষ্ট্র। রোববার সন্ধ্যায় হোয়াইট হাউসের কাছে অবস্থিত সেইন্ট জন'স এপিস্কোপাল চার্চে আগুন লাগিয়ে দেয় কিছু বিক্ষোভকারী। সোমবার সেখানে বিক্ষোভ চলমান থাকা অবস্থাতেই ওই গির্জায় প্রবেশের সিদ্ধান্ত নেন ট্রাম্প। প্রেসিডেন্টের জন্য পথ তৈরি করে দিতে বিক্ষোভকারীদের ওপর চড়াও হয় নিরাপত্তা বাহিনী। সহিংস পথে তাদের সরিয়ে দেওয়া হয়।

আমেরিকান সিভিল লিবার্টিস ইউনিয়ন এ ঘটনায় মামলা করেছে। তাদের অভিযোগ, গত সোমবার ট্রাম্পকে চার্চে যাওয়ার পথ তৈরি করতে রাসায়নিক বস্তু ছুড়ে একটি পার্ক থেকে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দিয়েছে নিরাপত্তাবাহিনী। এতে নাগরিক অধিকার ক্ষুণ্ন হয়েছে।

ওয়াশিংটনের ফেডারেল কোর্টে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়ে বলেছেন, কর্মকর্তা ও ফেডারেল সম্পত্তি রক্ষায় তা দরকার ছিল। মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, সোমবার লাফায়েত্তে পার্ক থেকে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে ট্রাম্প-বার ও অন্য কর্মকর্তারা 'আইনবহির্ভূতভাবে' তাদের অধিকার 'খর্ব করেছেন'।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে