logo
সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৫

  অনলাইন ডেস্ক    ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষপে

সংবাদ সংক্ষপে
কলকাতায় সৃজিত-মিথিলার বউভাত

তারার মেলা রিপোর্ট

আগামী ২৯ ফেব্রম্নয়ারি কলকাতার রাজকুঠিরে বউভাত অনুষ্ঠিত হবে সৃজিত মুখার্জি ও রাফিয়াত রশিদ মিথিলার। এরই মধ্যে প্রিয়জনদের কাছে অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণপত্র পৌঁছে দিতে শুরু করেছেন তারা। এ ছাড়া আমন্ত্রণপত্রটির ছবি ঘুরছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে। বিয়ের আমন্ত্রণপত্রের শিরোনাম দিয়েছেন, 'বসন্ত এসে গেছে'। এরপর লেখা, আমাকে আমার মতো থাকতে দাও... বলার দিন এবার শেষ। নৌকার পালে চোখ রেখে দিন কাটানোর আশায় বিয়েটা করেই নিলাম। তাই আপাতত মিথিলা আর সৃজিত এক রাস্তায় ট্রামলাইন, এক কবিতায় কাপলেট। আমাদের খুনসুটি আর ঝগড়াঝাটির জীবন আড্ডা দিয়ে জমজমাট করে তুলতে আসবেন কিন্তু। নমস্কারান্তে- মুখার্জি কমিশন।

মিথিলা-সৃজিতের প্রেমের গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ার পর সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে গত বছর ৬ ডিসেম্বর সৃজিতের দক্ষিণ কলকাতার লেক গার্ডেনসের বাড়িতে স্পেশাল ম্যারেজ অ্যাক্টে তাদের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়।

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের শেষ গান

তারার মেলা রিপোর্ট

বাংলাদেশের কিংবদন্তি গীতিকার ও সুরকার আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। গত বছরের ২২ জানুয়ারি তিনি না ফেরার দেশে চলে যান। খুব শিগগির বাজারে আসতে চলেছে এই সংগীতজ্ঞের শেষ জীবনের দুটি গান। গান দুটির শিরোনাম 'পাখি' ও 'হাওয়া'। দুটি গানেরই কথা লিখেছেন এবং সুর ও সংগীত করেছেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল নিজে। এই দুটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন এ প্রজন্মের দুই কণ্ঠশিল্পী সিঁথি সাহা ও রিজভী ওয়াহিদ। প্রযোজনার দায়িত্বেও রয়েছেন রিজভী। তিনি জানান, 'বুলবুল স্যারের সঙ্গে সাতটি গান করার কথা ছিল। এর মধ্যে পাঁচটি গানের কাজ শেষ হয়। বাকি দুটির কাজ শেষ করার দুই দিন আগে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এর কয়েকদিন পরেই মারা যান।' কণ্ঠশিল্পী সিঁথি সাহা বলেন, 'অসাধারণ একজন গানের মানুষ ছিলেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল স্যার। মৃতু্যর আগে তার রেখে যাওয়া শেষ গানে কণ্ঠ দিতে পেরে আমি ধন্য হয়েছি।'

গায়ক ও প্রযোজক রিজভী ওয়াহিদ জানান, চলতি সপ্তাহে গান দুটির ভিডিও নির্মাণ শুরু হবে। মিউজিক ভিডিও দুটি পরিচালনা করবেন শাহরিয়ার পলক। মাসখানেকের মধ্যেই আর ডাবিস্নউ এন্টারটেইনমেন্টের ইউটিউব চ্যানেলে গানের ভিডিও দুটি প্রকাশিত হবে।

আরএসএসকে তুলাধুনা করলেন সোনম

তারার মেলা ডেস্ক

ডিভোর্স নিয়ে মন্তব্যের জেরে ভারতের আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবতকে তুলাধুনা করলেন বলিউড অভিনেত্রী সোনম কাপুর। বরাবরই স্পষ্টভাষী হিসেবে পরিচিত সোনম ভাগবতের মন্তব্যকে পশ্চাদগামী বলে আখ্যা দিয়েছেন। সম্প্রতি আহমেদাবাদে আরএসএস-এর একটি অনুষ্ঠানে সপরিবার উপস্থিত ছিলেন দলের কর্মী-সমর্থকরা। সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে ভাগবত বলেন, 'আজকের দিনে বিবাহবিচ্ছেদের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। ছোটখাটো ইসু্যতেই লড়াই করছে মানুষ। শিক্ষিত ও সম্ভ্রান্ত পরিবারে ডিভোর্সের সংখ্যা বেশি। কারণ শিক্ষা ও প্রভাব-প্রতিপত্তি থেকে আসে ঔদ্ধত্য। তার ফলস্বরূপ পরিবারগুলো ভেঙে যায়। ভেঙে যায় সমাজও। কারণ সমাজটাও পরিবারের মতো।'

এই মন্তব্যেরই তীব্র বিরোধিতা করেছেন সোনম কাপুর। তিনি কোনো রকম রাখঢাক না করে টুইটে লিখেছেন, 'কোন পাগল লোক এই কথা বলেছে? পশ্চাদগামী বোকা বিবৃতি।' আহমদাবাদের অনুষ্ঠানে হিন্দু সমাজ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে ভাগবত বলেন, 'ভারতে হিন্দু সমাজের কোনো বিকল্প নেই। আর হিন্দু সমাজেরও পরিবারের মতো আচরণ করা ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প নেই।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে