logo
শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ৩০ মে ২০১৯, ০০:০০  

ববি বনাম বুবলি

ঈদে দর্শককে বিশেষ বিনোদন দিতে বড় কোনো চমকই উপহার দেয়ার চেষ্টা করেন সিনেমা নির্মাতারা। মুক্তি দেয়া হয় বড় বাজেটের ব্যয়বহুল চলচ্চিত্র। আসন্ন ঈদকে কেন্দ্র করে মুক্তি পাচ্ছে শাকিব খানের দুটি চলচ্চিত্র। 'নোলক' ও 'পাসওয়ার্ড' শিরোনামে এই দুই ছবি নিয়ে মুখোমুখি হচ্ছেন নায়িকা ববি ও বুবলি। বিস্তারিত লিখেছেন- জাহাঙ্গীর বিপস্নব

ববি বনাম বুবলি
শবনম বুবলি
চিত্রনায়ক মান্না মারা যাওয়ার পর দেশীয় চলচ্চিত্রে একাই রাজত্ব করছেন শাকিব খান। প্রায় ১০ বছর ধরে চাহিদার শীর্ষে অবস্থান করছেন এই নায়ক। আর এ কারণেই যে কোনো উৎসব উপলক্ষে শাকিব খানের ছবিগুলোকেই বেছে নেয়া হয়। আর ঈদ উৎসবে গত ১০ বছর ধরেই দেখা যাচ্ছে নিজের সঙ্গে নিজেই লড়াই করছেন শাকিব খান। কারণ দর্শক ও চাহিদার কথা বিবেচনা করে যেকটি সিনেমাই মুক্তি পায়, তার সবগুলোরই নায়ক শাকিব খান। এখন পর্যন্ত সেই ধারা অব্যাহত রয়েছে। পরিবর্তন দেখা যায় কেবল নায়িকার ক্ষেত্রে। শুরুর দিকে এসব সিনেমায় শাকিব খানের নায়িকা হিসেবে বেশি দেখা মিলত অপু বিশ্বাসের। কিন্তু কয়েকবছর ধরে সেই চিত্রে রদ-বদল হয়েছে। অপুর বদলে শাকিব খানের নায়িকা হিসেবে বুবলিকেই বেশি দেখা যাচ্ছে এখন। ২০১৬ সাল থেকে কোনো ঈদের ছবিতে শাকিবের সঙ্গে দেখা যাচ্ছে না অপুকে। আর তখনই জুটি গড়ে ওঠে শাকিব-বুবলির মধ্যে। এই বছর দুটি সিনেমা মুক্তি পায় এ জুটির। একটি 'শুটার' অন্যটি 'বসগিরি'। সেই যে শুরু। পরের বছর

নায়ক ঠিক থাকলেও নায়িকা হিসেবে বুবলির সঙ্গে লড়াই শুরু হয় অন্যান্য নায়িকার। পরের বছর ২০১৭ সালে ঈদের ছবির মধ্য দিয়েই অপু বিশ্বাসের মুখোমুখি হন বুবলি। ওই বছর অপু বিশ্বাসের 'রাজনীতি' সিনেমার সঙ্গে মুক্তি পায় বুবলি অভিনীত 'রংবাজ' সিনেমাটি। অনেকেই বলেছিলেন এবার জমবে লড়াই। যদিও এ নিয়ে অপু বলেছিলেন, 'লড়াইয়ের প্রশ্নই আসে না। সিনেমায় যখন থেকে অভিনয় করছি, তখন থেকে নিজেকে নিজেরই প্রতিদ্বন্দ্বী মনে করেছি। এখনো তাই। এমনও ঈদ গেছে, আমার তিন-চারটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। আমার সঙ্গে অন্য জনপ্রিয় নায়িকাদের মধ্যে মাহি আর ববির সিনেমাও ছিল। ওসব আমাকে কখনোই ভাবাত না। তাই এখনো ভাবছি না। দর্শকরা আমার অভিনয় দেখার জন্য যে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন, তা প্রতি মুহূর্তে টের পাচ্ছি। আমার শুধু নিজেকে প্রমাণ করার সময়।'

২০১৮ সালে মুক্তি পায় শাকিব খান ও বুবলি অভিনীত 'ক্যাপ্টেন খান'। এই বছর বুবলিকে লড়াই করতে হয়েছে মাহিয়া মাহীর সঙ্গে। মাহীর দুই সিনেমা মুক্তি পায় ওই ঈদে। একটি জান্নাত অন্যটি 'মনে রেখো'। আর এ আসন্ন ঈদে মুক্তি পাচ্ছে বুবলির পাসওয়ার্ড সিনেমাটি। আর এবার তার প্রতিদ্বন্দ্বী চিত্রনায়িকা ববি। শাকিব খান-ববি অভিনীত নোলক সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে এই ঈদেই। ২০১৭ সালে কাজ শুরু হওয়া ছবিটিকে ঈদ উৎসব নয় বরং পহেলা বৈশাখ বা অন্য কোনো উৎসবে মুক্তি দিতে চেয়েছিলেন ছবি সংশ্লিষ্টরা। কিন্তু সময়মতো শুটিং শেষ করতে না পারা, পরিচালক-প্রযোজক দ্বন্দ্বের কারণে অন্য উৎসবে মুক্তি দেওয়া সম্ভব হয়নি। সময়ের চাকা ঘুরে সামনে আরেক ঈদ উৎসব উপস্থিত। এ ছবির মাধ্যমে দীঘ দিন পর বড় পর্দায় আসছেন চিত্রনায়িকা ববি। তা ছাড়া নোলক'কে জীবনের সেরা সিনেমা উলেস্নখ করে দীর্ঘদিন ধরে সিনেমাটির মুক্তির জন্য অপেক্ষা করছেন তিনি। আর এ কারণেই নোলেকের মুক্তিতে দারুণ উচ্ছ্বসিত ববি। তাই কোনো লড়াই কিংবা প্রতিযোগিতায় নামতে নয়, নিজের দর্শককে সেরা অভিনয়টা দেখানোর জন্যই মুখিয়ে আছেন তিনি। ববি বলেন, নোলক আমার স্বপ্নের একটি সিনেমা। অনেক কিছু জড়িয়ে আছে এই সিনেমার সঙ্গে। অনেক কষ্ট করেছি সিনেমাটির জন্য। এই কষ্ট তখনই স্বার্থক হবে, যখন আমার সিনেমাটি দর্শক ভালোভাবে গ্রহণ করবে। এর বাইরে আমি আর কিছুই ভাবতে চাচ্ছি না আপাতত। তা ছাড়া চলচ্চিত্র হচ্ছে, প্রতিযোগিতার জায়গা। এখানে লড়াই করে নয়, টিকে থাককে হয় নিজের যোগ্যতা আর দক্ষতা দিয়ে। আমি চাই সবাই তার নিজ নিজ মেধা দিয়ে এগিয়ে যাক।'

ববি আরও বলেন, নোলক একটি মৌলিক ছবি। এই ছবির গল্প অনেক শক্তিশালী। এখানে শাকিব খানকে সম্পূর্ণ নতুনরূপে হাজির করা হয়েছে। আমি ব্যক্তিগতভাবে কখনো তাকে এমন চরিত্রে অভিনয় করতে দেখিনি। এ ছাড়া আমিও পুরোপুরি ভিন্ন ধরনের একটি চরিত্রে অভিনয় করেছি। আমি মনে করি, এবারের ঈদের অন্যতম সেরা ছবি হবে নোলক। আমি আমার চেষ্টার সবটুকু দিয়ে চেষ্টা করেছি ভালো অভিনয় করার। অনেকে বলছেন, নোলক খুব ভালো ছবি। মৌলিক গল্পের ছবি। কিন্ত এটি ঈদের ছবি না। এটা ভুল। ভালো ছবি মানেই ঈদের ছবি। এরকম একটি সিনেমা ঈদে মুক্তি পাওয়ারই দাবি রাখে।'

'নোলক' সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন ফেরারি ফরহাদ। আর 'পাসওয়াডর্'-এর পরিচালক মালেক আফসারী। শাকিব খান প্রযোজিত পাসওয়ার্ড নিয়ে বুবলি বলেন, 'আমি যতটুকু অভিনয় করি, তার সবকিছুই শিখেছি শাকিব খানের কাছ থেকে। এখনো কাজ করতে গিয়ে শিখছি। তিনি অনেক মেধাবী একজন অভিনেতা। আমাদের দুজনকে জুটি হিসেবে এরই মধ্যে গ্রহণ করেছেন দর্শক। ফলে একের পর এক ছবিতে দুজনের জুটি হিসেবে কাজ করার সুযোগ তৈরি হয়েছে। এ কথাগুলো পুরনো হলেও এটাই সত্যি।' তবে 'পাসওয়ার্ড' সিনেমাটি নিয়ে আগাম কিছুই বলতে চাই না আমার বিশ্বাস দর্শকরা শুরু থেকেই যেভাবে সানন্দে আমাকে গ্রহণ করেছেন, এবারই সেই ধারবাহিকতা বজায় রাখবেন তারা। আমার আগের সিনেমাগুলোর মতোই সুপারহিট ব্যবসা করবে সিনেমাটি।

বুবলি আরও বলেন, 'এ ছবির ফলাফলের ওপর আমার অনেক কিছুর নির্ভর করছে। আমি চলচ্চিত্রে এসেছি বড় ধরনের একটা স্বপ্ন নিয়ে। আমি আমার সেই স্বপ্নকে স্পর্শ করতে চাই। কোনো লড়াই করতে আসিনি। তবে লড়াই করতে আমি ভয়ও পাই না।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে