logo
শনিবার ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষপে

বুলবুল স্মরণে বাংলা একাডেমিতে গাইবেন চম্পা

তারার মেলা রিপোটর্

সদ্য প্রয়াত বরেণ্য গীতিকার, সুরকার, সংগীত পরিচালক ও মুক্তিযোদ্ধা আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল স্মরণে আগামী ১২ ফেব্রæয়ারি সন্ধ্যায় রাজধানীর বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে সংগীত পরিবেশন করবেন কণ্ঠশিল্পী চম্পা বনিক। এরই মধ্যে ‘গান চিরদিন’ নামক বিটিভির একটি অনুষ্ঠানে বুলবুল স্মরণে দুটি দেশাত্মবোধক গান গেয়েছেন চম্পা বনিক। গান দুটি হচ্ছে ‘সেই রেললাইনের পাশে’ ও ‘সব ক’টা জানালা খুলে দাওনা’। ৮ ও ৯ ফেব্রæয়ারি চম্পা পরপর দু’দিন দুটি ভিন্ন চ্যানেলের অনুষ্ঠানে সরাসরি সংগীত পরিবেশন করবেন। আগামী ৮ ফেব্রæয়ারি এনটিভির ‘ছুটির দিনে’ অনুষ্ঠানে সকাল ৮.১০ মিনিটে তিনি সরাসরি গাইবেন। আবার পরের দিন অথার্ৎ ৯ ফেব্রæয়ারি রাত ১১টায় নাগরিক টিভিতে ‘গানওয়ালা’ অনুষ্ঠানে গাইবেন তিনি। চম্পা বনিক বলেন, ‘ছুটির দিনে এবং গানওয়ালা’ দুটিই দুটি চ্যানেলের জনপ্রিয় দুটি সংগীতানুষ্ঠান। যে কারণে চ্যানেলের আগ্রহে পরপর দুই দিন দুটি চ্যানেলে গাওয়ার জন্য সম্মতি জানিয়েছি। সত্যি বলতে কী এখন তো স্টেজ শো’র মৌসুম। চ্যানেলে গাওয়ার জন্য সময় বের করা কঠিন হয়ে পড়ে। কিন্তু এটাও সত্যি চ্যানেলের আলাদা দশর্ক রয়েছে। তাদের জন্যও আমাদের গাইতে হয়। শিল্পী হিসেবে যেকোনো জায়গায় যেকোনো পরিবেশে সংগীত পরিবেশন করাটাকে আমি সম্মানের চোখে দেখি। শ্রোতা দশের্কর আগ্রহ, ভালোলাগা থেকেই একজন শিল্পীর এগিয়ে যাবার পথ সহজ হয়। আর আগের চেয়ে এখন আমি নিজের গান গাওয়াটা অনেক বেশি উপভোগ করি। কারণ এই গান কিংবা গান গাওয়াটাই শুধু একান্ত আমার।’

শরীফ রাজকুমারের সুর সংগীতে দেশের গানে অনুপমা মুক্তি

তারার মেলা রিপোটর্

দীঘির্দন যাবত গান গেয়ে আসছেন শ্রোতাপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী অনুপমা মুক্তি। এর মধ্যে একক অ্যালবাম যেমন প্রকাশ হয়েছেÑ পাশাপাশি সিনেমাতে গান গেয়েও তিনি প্রশংসা কুড়িয়েছেন। তবে সংগীত জীবনের দীঘির্দনের পথচলায় এবারই প্রথম অনুপমা মুক্তি দেশের গান গাইতে যাচ্ছেন। তার স্বামী সংগীতশিল্পী ও সংগীতের শিক্ষক শরীফ রাজকুমারের সুর সংগীতে ও মিলন খানের কথায় ‘অন্তর আমার লাল সবুজের প্রান্তর’ গানে কণ্ঠ দেবেন অনুপমা মুক্তি। শরীফ রাজকুমার জানান, এরই মধ্যে গানটির মিউজিক অ্যারেঞ্জম্যান্টের কাজ চলছে। শিগগিরই গানটির রেকডির্ং শেষে মিউজিক ভিডিও নিমার্ণ করা হবে। আগামী স্বাধীনতা দিবসে গানটি প্রকাশের ইচ্ছে রয়েছে অনুপমা মুক্তির। অনুপমা মুক্তি বলেন, ‘এর আগে রেডিও টিভিতে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অনেক দেশের গান গেয়েছি। কিন্তু এবারই প্রথম নিজের একটি দেশের গান হতে যাচ্ছে। আমি ভীষণভাবে কৃতজ্ঞ আমার স্বামী শরীফ রাজকুমারের কাছে। কারণ তারই ভীষণ আগ্রহে, অনুপ্রেরণায় আমার এ গানটি হতে যাচ্ছে। গানের কথা যেমন মন ছুঁয়ে যাওয়ার মতো ঠিক তেমনই সুরটাও অসাধারণ। আমার মনে হয়, আমার প্রথম দেশের গানটি বহুকাল থেকে যাওয়ার মতোই একটি গান হচ্ছে। আমি খুব আশাবাদী গানটি নিয়ে।’

এদিকে আজ যমুনা টিভির একটি অনুষ্ঠানে কবি আসাদ চৌধুরীর সঙ্গে রেকডির্ংয়ে অংশ নেবেন অনুপমা মুক্তি। অনুষ্ঠানটি পহেলা ফাল্গুন উপলক্ষে যমুনা টিভিতে প্রচার হবে আগামী ১৩ ফেব্রæয়ারি। আগামী ৮ ফেব্রæয়ারি তিনি বিমানবাহিনীর একটি অনুষ্ঠানে টাঙ্গাইলে স্টেজ শোতে সংগীত পরিবেশন করবেন। আগামী ৯ ফেব্রæয়ারি মুক্তি ‘র‌্যাব’ একটি অনুষ্ঠানে দুপুরে পোস্তগোলায় এবং রাতে ঢাকার শাহীন কলেজ অডিটরিয়ামে বিমানবাহিনীর আরেকটি অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করবেন। আগামী ১০ ফেব্রæয়ারি আরটিভিতে প্রচার চলতি ‘এই রাত তোমার আমার’ অনুষ্ঠানের রেকডির্ংয়ে অংশ নেবেন অনুপমা মুক্তি।

বাংলাদেশে আসছেন ক্রিস হেমসওথর্!

তারার মেলা ডেস্ক

২০১৪ সালে বাংলাদেশে এসেছিলেন ‘থর’ খ্যাত অভিনেতা ক্রিস হেমসওথর্। সীতাকুÐের শিপইয়াডর্ এলাকায় বেশ কয়েকদিন থেকে অভিনয় করেছিলেন ‘অ্যাভেঞ্জাসর্: এইজ অব আল্ট্রন’ শিরোনামের একটি সুপারহিরো সিনেমায়। ছবিটি মুক্তি পাওয়ার আগে অবশ্য সেই খবর কাকপক্ষীও টের পায়নি! জানতে পারেনি দেশীয় সংবাদকমীর্ আর সিনেমাপ্রেমীরাও।

ক্রিস হেমসওথর্ আবার আসছেন বাংলাদেশে। নেটফ্লিক্স প্রযোজিত ‘ঢাকা’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য চলতি মাস ফেব্রæয়ারিতেই ঢাকায় আসবেন হলিউডের অসম্ভব জনপ্রিয় এই অভিনেতা। তার সঙ্গে আসবেন অস্কারজয়ী ইরানি অভিনেত্রী গুলসিফতেহ ফারহানিও। তিনদিনের মতো ঢাকায় থাকবেন তারা। করবেন অভিনয়ও।

‘অ্যাভেঞ্জাসর্: এইজ অব আল্ট্রন’ ছবির বাংলাদেশ অংশের শুটিংয়ে লজিস্টিকস সহায়তা দিয়েছিল দেশীয় একটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান। ‘ঢাকা’ সিনেমার সংশ্লিষ্টরাও তাই দৃশ্যধারণের জন্য তাদের সঙ্গেই প্রথমে যোগাযোগ করেন। পরিচয় গোপন রাখার শতের্ প্রতিষ্ঠানটির একজন কমর্কতার্ জানিয়েছেন, এ মাসেই সিনেমার শেষ অংশের দৃশ্যধারণের জন্য ঢাকায় আসবে ছবিটির একটি টিম। আসবেন ক্রিস হেমসওথর্ও। এরজন্য অবশ্য তথ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি লাগবে। তিনি বলেন, ‘ঢাকা সিনেমার নিমার্তা প্রথমে পরিকল্পনা করেছিল বাংলাদেশে শুটিং করবে। এজন্য ওরা গোপনে বাংলাদেশে এসে বিস্তারিত স্টাডি করেছে, চিত্রনাট্যের কাজ করেছে। এরপর ওরা ভারতে আর ব্যাংককে সেট বানিয়ে দৃশ্যধারণ করেছে। তবে শেষ লটের কিছু কাজ করতে ওদেরকে ঢাকায় আসতে হবে। মন্ত্রণালয় থেকে অনুমতি মিললে ক্রিস হেমসওথর্ও আসবেন ঢাকায়।’ গত বছরের আগস্টে ‘ঢাকা’ শিরোনামের ছবিটি নিমাের্ণর ঘোষণা দিয়েছিল নেটফ্লিক্স । যেখানে টেইলর রেইক চরিত্রে অভিনয় করছেন ক্রিস হেসমওথর্। জো রুশো ও অ্যান্থনি রুশোর প্রযোজনায় ছবিটি নিমার্ণ করছেন স্যাম হারগ্রেভ। বাংলাদেশের রাজধানী শহর ‘ঢাকা’কে আবতর্ন করেই তৈরি হয়েছে ছবিটির গল্প। পুরদস্তুর মারপিট ধমীর্ এই সিনেমায় অপহৃত একটি শিশুকে ঢাকা থেকে উদ্ধার করবেন হেসমওথর্। ছবিতে হেমসওথের্র করা চরিত্রটি শারীরিকভাবে অনেক শক্তিসম্পন্ন হলেও মানসিকভাবে থাকবে ভঙ্গুর। ফলে ঢাকায় এসে তিনি নিজের আত্মপরিচয়ও খুঁজে পাবেন। এ ছবিতে গুলসিফতেহ ফারহানি অভিনয় করবেন বাংলাদেশি নারীর চরিত্রে।

মাইকোনোস দ্বীপে অ্যামির বিয়ে

তারার মেলা ডেস্ক

ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত ভারতীয় অভিনেত্রী অ্যামি জ্যাকসন। অনেকদিন ধরেই তার বিয়ের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। এমনকি নতুন বছরের শুরুতে প্রেমিক জজর্ পানাইয়োতুর সঙ্গে বাগদানের ঘোষণাও দিয়েছেন এ অভিনেত্রী। আগামী বছরের শুরুতে বিয়ের পরিকল্পনা করছেন এ জুটি। গ্রিসের মাইকোনোস দ্বীপে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারবেন তারা। এ প্রসঙ্গে একটি সূত্র ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘বেশ কয়েকটি স্থানের মধ্য থেকে তারা গ্রিসকে বেছে নিয়েছেন, কারণ বিশেষ দিনটির জন্য অ্যামি সমুদ্র সৈকতের পাশে একটি স্থান চাইছিলেন। তারা মাইকোনোস দ্বীপের একটি ভিলা খুঁজছেন এবং খ্রিস্টান মতে বিয়ে করবেন। গত বছর যখন তার বাগদত্তার সঙ্গে অ্যামি সেখানে গিয়েছিলেন তখনই স্থানটি তার পছন্দ হয়।’

২০১৫ সালে এক বন্ধুর মাধ্যমে ব্রিটিশ যুবক জজর্ পানাইয়োতুর সঙ্গে পরিচয় হয় অ্যামি জ্যাকসনের। গত বছরের শুরুতে তাদের ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী আন্দ্রেস পানাইয়োতুর ছেলে জজর্। কুইন সিটিতে তার একটি বিলাসবহুল নৈশক্লাব রয়েছে।

জানা গেছে, বিয়ের পর যুক্তরাজ্যে স্থায়ী হবেন অ্যামি। তবে ভারতে তার বিবাহোত্তর সংবধর্নার আয়োজন করবেন কিনা তা জানা যায়নি।

অ্যামি জ্যাকসনের সবের্শষ মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা টু পয়েন্ট ?জিরো বা রোবট-টু। এতে আরও অভিনয় করেছেন রজনীকান্ত ও অক্ষয় কুমার। শংকর পরিচালিত সিনেমাটি গত বছর নভেম্বর মুক্তি পেয়েছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে