logo
  • Fri, 21 Sep, 2018

  অনলাইন ডেস্ক    ১২ জুলাই ২০১৮, ০০:০০  

বিরামহীন আশা

তরুণ প্রজন্মের প্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী আজমেরী আশা। চ্যানেল আই ভিট টপ মডেল প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়ে তারকাখ্যাতি পান তিনি। এরপর শুধুই এগিয়ে চলা। নাটক, টেলিছবি, বিজ্ঞাপন ও মিউজিক ভিডিওতে নিয়মিত কাজ করছেন তিনি। এক শুটিং স্পট থেকে আরেক শুটিং স্পটে বিরামহীন ছুটে চলছেন এ তারকা। তাকে নিয়ে লিখেছেনÑ মাসিদ রণ

বিরামহীন আশা
আজমেরী আশা
আজমেরী আশা রোজার ঈদের পরপরই আসছে ঈদুল আজহার কাজ শুরু করে দিয়েছেন। সম্প্রতি নাটকের শুটিংয়ের জন্য বেশ কিছুদিন নেপালে ছিলেন তিনি। ঈদের নাটকের শুটিং নিয়ে আশা বলেন, ‘বঁাধন ড্রিম ভিশন’-এর ব্যানারে ঈদের জন্য ১২টি খÐ নাটক নিমির্ত হচ্ছে। নাটকগুলো আরটিভিতে প্রচারের সম্ভাবনা রয়েছে। সব নাটকেরই শুটিং হচ্ছে নেপালে। এ জন্য এ সময়ের একঝঁাক ব্যস্ত অভিনয়শিল্পী নেপালে গিয়েছিলেন। আমার শুটিং শেষ হয়ে যাওয়ায় আগেই দেশে ফিরেছি। ১২টির মধ্যে আমি তিনটি নাটকে কাজ করেছি। দুটি নাটক নিমার্ণ করেছেন দিপু হাজরা আর একটি অঞ্জন আইচ। দুটি নাটকে আমার সহশিল্পী ছিলেন জোভান। আর একটিতে নাঈম ও মনোজ কুমার। প্রতিটি নাটকের গল্পই আলাদা। বিশেষ করে দিপু হাজরার নিদের্শনায় আমি আর জোভান যে নাটকটি করেছি সেটার গল্প আসলেই চমৎকার। আশা করছি বরাবরের মতো আমার এই কাজটিও দশর্ক সাড়া ফেলবে।

এদিকে গেল সপ্তাহে এনটিভিতে প্রচার হয়েছে আশা অভিনীত ৭ পবের্র ধারাবাহিক নাটক ‘দুষ্টু ছেলের দল’। আদনান আল রাজীব ও রেদওয়ান রনির যৌথ রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন রেদওয়ান রনি। নাটকটিতে আরও অভিনয় করেছেন- মোশাররফ করিম, বঁাধন, শ্যামল মাওলা, মিথিলা, ইশতিয়াক আহমেদ রুমেল, শাহতাজ, তৌসিফ মাহবুব, নাদিয়া মীম, সুমন পাটওয়ারী, মনিরা মিঠু প্রমুখ। এ নাটকটি নিয়ে আশা বলেন, ‘দুষ্টামি ভর করে কয়েকজন দুষ্টু ছেলের মাথায়। তারা প্ল্যান করে এক অভিযানের। তাদের পিছনে আবার লাগে মিষ্টি কয়েকজন মেয়ে। অদ্ভুত মজার সব ঘটনা ঘটতে থাকে একের পর এক।’

গেল ঈদে খুব বেশি কাজ করেননি আশা। হাফ ডজনের মতো নাটক প্রচার হয়েছিল তার। এর মধ্যে একাধিক নাটকের শুটিং করেছেন নেপালে। এসব নাটকের শুটিং করতে লম্বা সময় দেশের বাইরে ছিলেন বলেই ঈদের কাজের পরিমাণ কমে গেছে। এ নিয়ে আশা বলেন, ‘বিগত ঈদে আমার এক ডজনের মতো নাটক প্রচার হতো। তবে দশর্ক সাড়া পেতাম ৫-৬টি নাটকে। তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছি ভিন্নধমীর্ গল্প না হলে কাজ করবই না। খুব বেশি বেছে বেছে কাজ করছি বলেই আজকাল আমাকে পদার্য় খুব একটা দেখা যাচ্ছে না। কিন্তু তাতে আমি চিন্তিত নই। কারণ, সারাদিন টিভিতে মুখ দেখা গেলেই কেউ সফল হতে পারেন না। দিন শেষে ভালো কাজটিই দশর্ক মনে রাখেন। এ জন্য এখন থেকে যে কাজটিই করব তা হতে হবে মানসম্মত।’

একই চরিত্রে বার বার করবেন না বলে এরমধ্যে বেশকিছু বিজ্ঞাপন ও মিউজিক ভিডিওর কাজও ফিরিয়ে দিয়েছেন এই তারকা। সবের্শষ তাকে তানজিব সরোয়ারের একটি মিউজিক ভিডিওতে দেখা গেছে। যেখানে তিনি একজন বোষ্টমীর ভ‚মিকায় অভিনয় করেছেন। একজন বোষ্টমীও যে আবেদনময়ী হতে পারেন তা বুঝতে পেরেছেন যারা এই ভিডিওটি দেখেছেন। এভাবেই একটি সাধারণ কাজকে নিজের মেধার সমন্বয়ে আলাদা করে ফেলেন আশা।

ছোটবেলা থেকেই নাচ শিখেছেন। স্কুল শেষ করতে না করতেই শুরু করেন মডেলিং। জীবনের প্রথম ক্যামেরার সামনে দঁাড়ান জনপ্রিয় ম্যাগাজিন ‘ক্যানভাসে’র ফটোশুটে। এরপর এয়ারটেলের একটি ক্যাম্পেইন ফটোশুটে প্রথম পারিশ্রমিক পান তিনি। স্বনামধন্য ব্র্যান্ড ‘এক্সটেসি’র মডেলও হন ওই সময়। এরপর অংশ নেন চ্যানেল আই ভিট টপ মডেল প্রতিযোগিতায়। সেখান থেকে বিজয়ী হয়ে প্রথমেই জুটিবদ্ধ হন জনপ্রিয় তারকা তাহসানের বিপরীতে ‘দ্বিতীয় মাত্রা’ নাটকে। সেই নাটকে ছিলেন তার ছোটবোন আরেক জনপ্রিয় তারকা পিয়া বিপাশাও।

আশার ক্যারিয়ারে উল্লেখযোগ্য কাজের মধ্যে রয়েছে ক্লোজআপ আছে আশার গল্পের বিজ্ঞাপন, এ সময়ের জনপ্রিয় সব অভিনেতাদের সঙ্গে একাধিক সফল নাটক ও টেলিছবি, আন্তজাির্তক ব্র্যান্ড ট্রেসমে’সহ দেশের ভাসাবি, ডায়মন্ড ওয়াল্ডের্র মতো ব্র্যান্ডের মডেল হওয়া। এ ছাড়াও তার ঝুলিতে রয়েছে একাধিক সাড়া জাগানো মিউজিক ভিডিও।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

উপরে