logo
সোমবার ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৩ পৌষ ১৪২৫

  অনলাইন ডেস্ক    ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

বিরুস্কা’র বিবাহবাষির্কী

দেখতে দেখতে এক বছর হয়ে এলো ক্রিকেট তারকা বিরাট কোহলি এবং বলিউড তারকা আনুশকা শমার্র দাম্পত্য জীবনের। আগামী ১১ ডিসেম্বর তাদের প্রথম বিবাহবাষির্কী ‘বিরুস্কা’ জুটির। ইতালিতে বিয়ে করলেও বিরাট-আনুশকা নিজেদের প্রথম বিবাহবাষির্কী উদযাপন করবেন অস্ট্রেলিয়ায়। তবে প্রথম বিবাহবাষির্কীতে নিজেদের মতো করে একান্ত সময় কাটানোর সুযোগ নেই। লিখেছেনÑ নিলুফা ইয়াসমিন

বিরুস্কা’র বিবাহবাষির্কী
আজ ৬ ডিসেম্বর ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট সিরিজ শুরু হচ্ছে। তাই ইচ্ছা থাকলেও স্ত্রীকে নিয়ে বাইরে কোথাও যাওয়া তার পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না টেস্ট অধিনায়ক বিরাট কোহলির। অন্যদিকে আগামী ২১ ডিসেম্বর মুক্তি পাচ্ছে আনুশকা শমার্ অভিনীত নতুন সিনেমা ‘জিরো’। সেই ছবির প্রচারণায় থাকতে হবে তাকে। এ জন্য খুব একটা সময় নেই আনুশকার হাতেও। তাই প্রথম বিবাহবাষির্কী ছোট পরিসরেই উদযাপন করবেন বিরাট-আনুশকা। সেই আয়োজনে কেবল তারা দুজনই থাকবেন বলে জানা গেছে।

অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেডে শুরু হওয়া টেস্ট সিরিজ শেষ হবে ১০ ডিসেম্বর। তারপরের দিন অস্ট্রেলিয়াতেই নিজেদের প্রথম বিবাহবাষির্কী সেলিব্রেট করবেন বিরুস্কা। বেটার হাফের সঙ্গে কয়েকটা দিন কাটিয়ে আবার দেশে ফিরবেন অনুশকা। ফিরেই আবার নিজের আপকামিং ছবি ‘জিরো’র প্রচার শুরু করবেন তিনি। ভালোই চলছিল কোহলি এবং আনুশকার প্রেম। সে সময় কয়েকদিন পর পরই গণমাধ্যমের শিরোনামে উঠে আসত দুই ভুবনের এ দুই তারকাকে নিয়ে নানান কথা। বিরাট কোহলি যেমন ক্রিকেটের বাইরে একটু বিশ্রাম পেলেই ছুটে যেতেন আনুশকার কাছে, তেমনি আনুশকাও সিনেমার শুটিংয়ের ব্যস্ততার মাঝেও কোহলির খেলা দেখার জন্য ছুটে যেতেন স্টেডিয়ামে। তখন প্রায় সময় আনুশকাকে গ্যালারিতে দেখা যেত। এমনকি ২০১৫ সালের আগ পযর্ন্ত কোহলি-আনুশকার প্রেমটা এতই গভীর ছিল যে, ভারতীয় দলের বিবাহিত সদস্যেদের যখন বিদেশের মাটিতে খেলতে যাওয়ার সময় তাদের প্রিয়তমা স্ত্রীদের সঙ্গে নিয়ে যাওয়ার অনুমতি দেয়া হতো তখন বিরাট কোহলিকে অনুমতি দেয়া হতো তার সঙ্গে প্রেমিকা আনুশকাকে নিয়ে যাওয়ার।

বিরাট কোহলি এবং আনুশকা এমনই এক তারকা জুটিÑ যারা প্রেমের ক্ষেত্রে কখনোই কিছু আড়াল করেননি। একসঙ্গে সিনেমা হলে মুভি দেখতে যাওয়া, ঘুরতে যাওয়া থেকে শুরু করে রেস্টুরেন্টে ডিনার করা পযর্ন্ত সবকিছুই তারা করেছেন প্রকাশ্যে। এমনকি কোহলি-আনুশকার প্রকাশ্যে চুমু খাওয়ার দৃশ্যও দেখেছে তাদের ভক্তরা।

অনেকের ধারণা ২০১৫ সালে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপে ভারতের ব্যথর্তার পেছনে মূল কারণ ছিল সেমিফাইনালে দলের সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলির রান না পাওয়া। ওই ম্যাচে মাত্র ১ রান করেছিলেন কোহলি। এদিন কোহলির রান না পাওয়ার জন্য গ্যালারিতে বলিউড সুন্দরী আনুশকা শমার্র উপস্থিতিকে দায়ী করেন অনেকে।

এরপরই যেন ভাটা পড়ে কোহলি-আনুশকার প্রেমে। নিজেদের পরস্পর থেকে দূরে রাখতে শুরু করেন এ দুজন। তখন আনুশকা শমার্ কোহলির সঙ্গে বিচ্ছেদ করেছেন বলেও গুঞ্জন উঠেছিল গণমাধ্যমে। তবে এর পেছনেও ছিল যুক্তিসঙ্গত কারণ। সে সময় বিরাট কোহলি হঠাৎ সামাজিক মাধ্যমে ‘হাটের্ব্রাকেন’ লিখে একটি পোস্ট দিয়েছিলেন। কোহলির এমন পোস্ট দেখেই সবাই ভেবেছিলেন হয়তো বা প্রেমের ইতি টেনে তাকে ছেড়ে গিয়েছেন আনুশকা। তবে তখন আসলেই কি ঘটেছিল তা এখনো অজানা কোহলি-আনুশকা ভক্তদের কাছে।

এরপর মাঝখানে এক দীঘর্ নীরবতা। বহুদিন একসঙ্গে দেখা যায়নি আনুশকা শমার্ এবং বিরাট কোহলিকে। গণমাধ্যমেও খুব একটা উঠে আসেনি তাদের খবর। কিন্তু অবশেষে নীরবতা ভাঙল গত মাসে। অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে ভারতীয় গণমাধ্যমে হঠাৎ প্রকাশ পায় আনুশকা শমার্ এবং বিরাট কোহলির বিয়ের খবর।

চলতি মাসে কোহলিদের বিপক্ষে ৩টি টেস্ট, ৩টি ওয়ানডে এবং ৩টি টি-টোয়েন্টি খেলার জন্য ভারতে আসবে শ্রীলঙ্কা। শ্রীলঙ্কার এ ভারত সফর শেষ হবে ডিসেম্বরের ২৪ তারিখ। বোডর্ যখন এ সফরের জন্য ভারত দল ঘোষণা নিয়ে ব্যস্ত তখনই বিশ্রামের কথা বলে বোডের্র কাছে ছুটির আবেদন পাঠান বিরাট কোহলি। এরপরই উঠে আসে ডিসেম্বরে কোহলি এবং আনুশকার বিয়ের খবর। এ ক্ষেত্রে সংবাদ মাধ্যমগুলোর দাবি ছিল, ডিসেম্বরে আনুশকার সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে জড়ানোর পরিকল্পনা আছে বলেই শ্রীলঙ্কার ভারত সফরের সময়ে দল থেকে ছুটি চেয়েছেন বতর্মানে সব ধরনের ক্রিকেটে ভারতের অধিনায়ক। তখন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে ব্যস্ত থাকায় এ বিষয়ে কোহলির কোনো মন্তব্য জানতে পারেনি গণমাধ্যম। তবে কোহলির কাছে কিছু জানা না গেলেও ঠিকই মুখ খুলেছেন তার প্রেমিকা আনুশকা শমার্। ডিসেম্বরে কোহলিকে বিয়ে করা প্রসঙ্গে আনুশকা স্পষ্ট কোনো বক্তব্য না জানালেও ইঙ্গিতে বুঝিয়েছেন এখনই কোহলিকে বিয়ে করতে চাচ্ছেন না তিনি।

প্রেমিকা আনুশকার মুখে এখনই বিয়ে করবেন না এমন কথা শোনার পর স্বাভাবিকভাবেই বিরাট কোহলির মনে তার প্রতি অভিমান জন্ম নেয়ার কথা।

কিন্তু অবাক করার মতো হলেও সত্যি আনুশকার এমন কথা শোনে তার প্রতি মোটেই ক্ষুব্ধ নন বতর্মান বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান কোহলি, বরং এরপর থেকে বিভিন্ন গণমাধ্যমে কেবল আনুশকার প্রশংসাই করে যাচ্ছেন তিনি। কয়েকদিন আগে নিজ দেশের একটি টিভি অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কোহলি। সে অনুষ্ঠানে তিনি যেভাবে আনুশকা বন্দনায় মেতেছিলেন তাতে মনে হয় যেন আনুশকার মুখে এখনই বিয়ে করবেন না শোনার পরে তার প্রতি ভালোবাসা আরো বেড়ে গেছে ভারতীয় অধিনায়কের। এ অনুষ্ঠানে কোহলি বলেছেন, তার জীবনের অনুপ্রেরণা হলো আনুশকা। আনুশকার কাছেই তিনি ধৈযর্শীল হতে শিখেছেনÑ যা মাঠে তার ভালো ব্যাটিংয়ের অন্যতম কারণ। এ সময় বলিউড সুন্দরী আনুশকা শমার্র নজরকাড়া রূপের চেয়েও তার সততায় বেশি মুগ্ধ হওয়ার কথাও জানান কোহলি।

আনুশকা সম্পকের্ কোহলির এমন মন্তব্যে স্পষ্টই বুঝিয়ে দেয় তাকে কতটা ভালোবাসেন এ ক্রিকেটার। একটি বিজ্ঞপনে মডেল হিসেবে অভিনয় করতে গিয়ে হওয়া পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব, সেই বন্ধুত্ব থেকে প্রেম, মাঝখানে কিছুটা বিচ্ছেদ, বিচ্ছেদের অবসান ঘটিয়ে আবারো দুজনের এক হওয়া এভাবেই চলছে বিরাট-আনুশকার প্রেমের গল্প।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে