logo
মঙ্গলবার ২১ মে, ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  তারার মেলা ডেস্ক   ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

সেলেনা গোমেজ বছরটা ভালো গেল না

সেলেনা গোমেজ বছরটা ভালো গেল না
সেলেনা গোমেজ
অসুখ-বিসুখ আর ঘটনা-রটনার মধ্যে শেষ হলো হলিউডের তরুণ পপস্টার সেলেনা গোমেজের একটি বছর। হতাশা-বিষাদে ভরে ছিল চলতি বছরটি। গত কয়েক সপ্তাহের ব্যবধানে দুবার হাসপাতালে গেছেন এই সংগীতশিল্পী। এতে তিনি মানসিকভাবেও ভেঙে পড়েছেন। শিগগিরই মনোরোগ চিকিৎসকের কাছে যাওয়ারও পরিকল্পনা করছেন।

হাসপাতালে প্র্রতিবারের চিকিৎসায় সেলেনার রক্তের শ্বেতকণিকা কম ধরা পড়েছে। কিডনি প্র্রতিস্থাপন করা রোগীর এই পাশ্বর্প্রতিক্রিয়া দেখা যায়। এ কারণে কয়েক সপ্তাহ ধরেই মানসিকভাবে সেলেনা বেশ বিপযর্স্ত ছিলেন। দুবার হাসপাতালে যাওয়ায় তিনি বেশ আতঙ্কগ্রস্তও হয়ে পড়েন। তার কাছের লোকজন বলছেন, সেলেনা বুঝতে পেরেছেন যে তার এই মানসিক বিপযর্স্ততার জন্য পরিবারের লোকজনের সাহায্য দরকার। পরিবারের লোকজনও তার পাশে দঁাড়িয়েছেন, তাকে সাহায্য করছেন। এখন আগের চেয়ে সেলেনার অবস্থা ভালো এবং মানসিক চিকিৎসার জন্য শিগগিরই পুনবার্সন কেন্দ্রে ভতির্ হবেন।

তার এই মানসিকভাবে ভেঙে পড়ার বিষয়টি নজরে আসে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে সাময়িক বিরতি নেয়ার ঘোষণা দেয়ার পর। তবে সেলেনার মানসিক রোগ এবারেই প্র্রথম ধরা পড়েনি। এর আগেও তিনি অবসাদ, বিষণœতা ও দুশ্চিন্তার কারণে গান থেকে সাময়িক বিরতি নিয়েছিলেন। অনেকে ধারণা করছেন, সম্প্রতি সাবেক প্রেমিক জাস্টিন বিবারের সঙ্গে হেইলি বল্ডউইনের বিয়েও তার মানসিক যন্ত্রণার একটি কারণ হতে পারে।

গত বছরের মে মাসে কিডনি প্র্রতিস্থাপন করা হয় সেলেনার শরীরে। বেশ কিছুদিন সেলেনা তার অস্ত্রোপচারের ব্যাপারটি গোপন রেখেছিলেন। গত সেপ্টেম্বরে তিনি ঘোষণা দেন যে লুপাস রোগে আক্রান্ত হওয়ায় তার কিডনি প্র্রতিস্থাপন করতে হয়েছে। বান্ধবী অভিনেত্রী ফ্রান্সিয়া রেইসা তাকে একটি কিডনি দান করেছেন।

ব্যক্তি জীবনের পাশাপাশি ক্যারিয়ারেও মন্দা বাতাস লাগে সেলেনার। দুই বছর ধরে ইনস্টাগ্রামে সবচেয়ে বেশি অনুসারী নিয়ে আলোচনায় ছিলেন সেলেনা। সেলেনাকে হটিয়ে সেই জায়গা দখল করলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ২৯ অক্টোবর পযর্ন্ত ফলোয়ারের হিসাবে শীষের্ই ছিলেন সেলেনা গোমেজ। পরিসংখ্যান বলছে, রোনালদোর অনুসারীর সংখ্যা হয়েছে ১৪ কোটি ৪৩ লাখ ২০ হাজার ৪৭৬। আর সেলেনার অনুসারীর সংখ্যা ১৪ কোটি ৪৩ লাখ ১২ হাজার ৭৪৫।

অনেকেই বলছেন, ২৩ সেপ্টেম্বরের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে একপ্রকার স্বেচ্ছায় নিবার্সনে রয়েছেন তিনি। নতুন পোস্ট না থাকায় তার অনুসারীর সংখ্যা বাড়েনি বলে ধারণা করা হচ্ছে। আর এ সুযোগেই শীষের্ উঠে এলেন রোনালদো।

ক্যারিয়ারের পাশাপাশি ব্যক্তিগত নানা বিষয় নিয়েও সংবাদ শিরোনাম হয়েছেন ২৪ বছর বয়সী সেলেনা। গায়ক জাস্টিন বিবারের সঙ্গে সম্পকর্ ছিন্ন হওয়ার পর কানাডিয়ান সংগীতশিল্পী দ্য উইকেন্ডের সঙ্গে মন দেয়া-নেয়া চলছে তার। তার সঙ্গে নাকি বিয়ের পরিকল্পনাও করে ফেলেছেন সেলেনা। যদিও এ বিষয়ে এখনো কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেননি কেউ। সম্প্রতি ইনটাচ ম্যাগাজিনে প্র্রকাশিত এক প্র্রতিবেদনে বলা হয়, অচিরেই দ্য উইকেন্ডের সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার পরিকল্পনা করেছেন সেলেনা। ‘স্টারবয়: লিজেন্ড অব দ্য ফল ২০১৭ ওয়াল্ডর্ ট্যুর’ শেষ হওয়ার পর বিয়ে করবেন তিনি। এমনকি বিয়েতে কোনো পোশাক পরবেন তাও নাকি ঠিক করেছেন এই গায়িকা। ম্যাগাজিনে আরও জানানো হয়, সেলেনার দাবি দ্য উইকেন্ডের সঙ্গে তার আত্মিক সম্পকর্ রয়েছে। এ কারণে তাকেই বিয়ে করবেন তিনি।

এ নিয়ে পঞ্চমবারের মতো প্রেম করছেন সেলেনা। সদ্য বিয়ে করা প্রিয়াঙ্কার চোপড়ার স্বামী নিক জোনাসের সঙ্গেও প্রেম করেছেন তিনি ।

সংগ্রাম করেই নিজেকে প্র্রতিষ্ঠিত করেছেন সেলেনা। কিশোর বয়সে তাকে দারিদ্র্যের সঙ্গে যুদ্ধ করে জীবন অতিবাহিত করতে হয়েছে। তার বয়স যখন পঁাচ তখন তার বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ হয়। একটি সুখী পরিবার পেতে ব্যাকুল ছিলেন তিনি। তার মা তাদের খরচ যোগাতে তিনটি চাকরি করতেন। একবেলা খাবার জোটাতেই তাদের হিমশিত খেতে হতো। এরপরও সেলেনাকে অনুপ্রাণিত করতে টাকা জমিয়ে তার মা কনসাটের্ নিয়ে যেতেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে