logo
শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  ছবি ঘোষ   ২৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

ওয়াল্টনের স্মাটর্ ও এলইডি টিভির বৈচিত্র্য

ওয়াল্টনের স্মাটর্ ও এলইডি টিভির বৈচিত্র্য
বড় পদার্র স্মাটর্ ও এলইডি টিভির দাম কমলো বাংলাদেশি মাল্টিন্যাশনাল ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ড ওয়ালটন।

কারখানায় পণ্য উৎপাদন ও মাথাপিছু পণ্য উৎপাদন ব্যয় কমায় টিভির দাম আরও কমালো।

গ্রাহকরা ‘অ্যান্ড্রয়েড ৭’ যুক্ত লেটেস্ট অপারেটিং সিস্টেমের ওয়ালটনের ৩২ ইঞ্চি স্মাটর্ টিভি এখন ২৩ হাজার ৮০০ টাকায় ও এলইডি টিভি ১৮ হাজার ৮০০ টাকায় কিনতে পারছেন।

এদিকে ৩৯ ও ৪৩ ইঞ্চির মডেলের টিভিতে দাম কমেছে ২ হাজার টাকা। এখন ৩৯ ইঞ্চি স্মাটর্ টিভি ৩৪ হাজার ৯০০ টাকায় এবং এলইডি টিভি ২৯ হাজার ৯০০ টাকায় কেনা যাচ্ছে। আর ৪৩ ইঞ্চি স্মাটর্ ও এলইডি টিভির দাম কমিয়ে নিধার্রণ করা হয়েছে যথাক্রমে ৩৭ হাজার ৯০০ টাকা ও ৩৪ হাজার ৯০০ টাকা। বিজয়ের মাসে ওয়ালটন টিভির অনলাইন ক্রেতাদের জন্য নগদ ছাড় ও ফ্রি হোম ডেলিভারির সুবিধা দেয়া হচ্ছে।

ওয়ালটন ‘ই-প্লাজা’ থেকে অনলাইনে ওয়ালটনের যে কোনো টিভি কিনলেই গ্রাহক পাচ্ছেন ১০ শতাংশ পযর্ন্ত নগদ ছাড়। পাশাপাশি ই-প্লাজার ১৫ কিলোমিটারের মধ্যে রয়েছে ফ্রি হোম ডেলিভারি সুবিধা। গ্রাহকরা এই সুবিধা পাবেন পুরো ডিসেম্বরজুড়ে।

ওয়ালটন টেলিভিশন সেলস বিভাগের প্রধান মারুফ হাসান জানান, স্থানীয় বাজারে গ্রাহকপ্রিয়তার শীষের্ ওয়ালটন টিভি। ধারাবাহিকভাবে প্রতিবছর বাড়ছে টিভি বিক্রির পরিমাণ। চলতি বছরেও জানুয়ারি থেকে নভেম্বর মাস পযর্ন্ত গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ২৫ শতাংশের বেশি টিভি বিক্রি হয়েছে ওয়ালটনের।

তার মতে- অত্যাধুনিক প্রযুক্তি, উন্নত ফিচার, উচ্চ গুণগতমান, আকষর্ণীয় আউটলুক, সাশ্রয়ী মূল্য, দেশের সবর্ত্র সহজলভ্য এবং দ্রæত সবোর্ত্তম বিক্রয়োত্তর সেবার নিশ্চিয়তা থাকায় বাজারে গ্রাহক পছন্দের শীষের্ ওয়ালটন টিভি।

তিনি বলেন, কারখানায় সবার্ধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার ও বাজারে ক্রমবধর্মান বিক্রির প্রেক্ষিতে কারখানায় ওয়ালটন টিভির উৎপাদন বেড়েছে। সেই সঙ্গে উৎপাদন ব্যয় কমছে। ফলে, দাম কমিয়ে ক্রেতাদের আরও সাশ্রয়ী মূল্যে পণ্য দিতে সক্ষম হয়েছে ওয়ালটন।

ওয়ালটনের ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম বলেন, ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’খ্যাত ওয়ালটন টিভি এখন এশিয়া, মধ্য-প্রাচ্য, আফ্রিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশেও রপ্তানি হচ্ছে। মানের দিক থেকে অনেক উন্নত এবং দামেও সাশ্রয়ী হওয়ায় বিশ্ববাজারে প্রতিনিয়ত বাড়ছে ওয়ালটন টিভির গ্রাহকপ্রিয়তা। তৈরি হচ্ছে নতুন রপ্তানি বাজার।

জানা গেছে, টিভির বড়পদার্য় ইউটিউব, ফেসবুক, ইন্টারনেট ব্রাউজিং, গেমিং, মোবাইলে রক্ষিত অডিও, ভিডিও, ইমেজ ইত্যাদি উপভোগ, লাজর্ ভিউ ভিউয়িং অ্যাঙ্গেল, হাই কন্ট্রাস্ট পিকচার, ডলবি ডিজিটাল সাউন্ড, নয়েজ রিডাকশন ও আল্ট্রা ¯িøম ডিজাইনের হওয়ায় বাজারে ওয়ালটন স্মাটর্ টিভির গ্রাহক চাহিদা ব্যাপকহারে বাড়ছে। এরই প্রেক্ষিতে গাজীপুরের চন্দ্রায় নিজস্ব কারখানায় স্মাটর্ টিভির উৎপাদন বাড়িয়েছে ওয়ালটন।

বতর্মানে স্থানীয় বাজারে ৩২, ৩৯, ৪৩, ৪৯ ও ৫৫ ইঞ্চির সবের্মাট ২৫টি মডেলের অ্যান্ড্রয়েড স্মাটর্ টিভি রয়েছে। এর মধ্যে ৫৫ ও ৪৯ ইঞ্চিতে রয়েছে একটি করে মডেল, ৪৩ ইঞ্চিতে তিনটি মডেল এবং ৩৯ ইঞ্চিতে পঁাচটি মডেল।

তবে মধ্যম আয়ের গ্রাহকদের কথা বিবেচনা করে ৩২ ইঞ্চির স্মাটর্ টিভিতে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক অথার্ৎ ১৫টি মডেল রয়েছে। এসব টিভির মধ্যে সম্প্রতি লেটেস্ট অপারেটিং সিস্টেম ‘অ্যান্ড্রয়েড ৭’ যুক্ত ৩২, ৩৯ ও ৪৩ ইঞ্চির নতুন মডেলের টিভি বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন। নতুন মডেলের প্রতিটি টিভিতে রয়েছে ১ জিবি র‌্যাম ও ৮ জিবি বিল্ট-ইন মেমোরি।

ওয়ালটন টেলিভিশন বিভাগের প্রধান নিবার্হী কমর্কতার্ প্রকৌশলী মোস্তফা নাহিদ হোসেন বলেন, দেশেই নিজস্ব তত্ত¡বধানে কঠোরভাবে মান নিয়ন্ত্রণ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তৈরি হচ্ছে ওয়ালটন টিভি। ওয়ালটন টিভি ইতোমধ্যে অজর্ন করেছে ব্যুরো অব ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডাডর্স (বিআইএস) ও স্ট্যান্ডাডর্স অরগানাইজেশন অব নাইজেরিয়া প্রোডাক্ট কনফরমিটি অ্যাসেসমেন্ট প্রোগ্রামের টেস্টিং সাটিির্ফকেট।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে