logo
বুধবার ২১ আগস্ট, ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

  সোরিয়া রওনক   ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০  

কেমন হবে ভালোবাসার মানুষের উপহার

ভালোবাসা প্রকাশের জন্য গোলাপ ফুল এখনো সেরা। যুগ যুগ ধরেই ভালোবাসা প্রকাশ করার অন্যতম একটি মাধ্যম হলো লাল গোলাপ। লাল গোলাপ ছাড়া যেন সব উপহারই মলিন রয়ে যায়। ভালোবাসা দিবসে প্রিয় মানুষটিকে একটি লাল গোলাপ দিয়ে দিনটিকে একটু রঙিন করলে মন্দ কী! শুধু তাই নয়Ñ পরিবার কিংবা বন্ধুকেও ফুলের নান্দনিক উপহার দিয়ে চমকে দিতে পারেন...

কেমন হবে ভালোবাসার মানুষের উপহার
মডেল : আসমা
ভালোবাসা সবার জন্য। আমরা সব দিনই একে অন্যকে ভালোবাসি। কিন্তু ভালোবাসা দিবসে ভালোবাসার বিশেষ প্রকাশ একটি গুরুত্বপূণর্ মযার্দা পায়। অনেকে তো এই দিনে মনের কথা জানাতে চায় ভালোবাসার মানুষটিকে। বাবা, মা, ভাই, বোন, আত্মীয়স্বজন সবার মধ্যেই একটা প্রাণচাঞ্চল্য বেড়ে যায় ভালোবাসা দিবস উদযাপন ও এ নিয়ে নানা সারপ্রাইজ আইডিয়া নিয়ে। এর মধ্যে বয়স ও রুচি অনুযায়ী উপহার দেয়া তো লিস্টের প্রথম সারিতেই থাকে!

চলুন তাহলে জেনে নিই এমন কিছু ভ্যালেন্টাইন উপহার সম্পকের্।

একান্তে সময় কাটানো : উপহার যাই হোক না কেন, প্রিয়জনের সঙ্গে বিশেষ দিনটি বিশেষভাবে কাটানোই হবে সবচেয়ে বড় উপহার। আপনি বড় বড় উপহার দিলেন অথচ প্রিয়জনের সঙ্গে সময় কাটানোর জন্য একটুও অবসর পেলেন না, তাহলে আপনার পুরো আয়োজনই মাটি! ভালোবাসার মানুষের সঙ্গে সময় কাটানোর জন্য আগেই যতটা সম্ভব অফিসিয়াল কাজ গুছিয়ে রাখুন। একান্তে থাকুন বিশেষ দিনটিতে। বাচ্চা আর বয়স্ক সদস্য যারা আছে তাদের বিশেষ গুরুত্ব দিন। একটু বেশি সময় পেলে ঘুরে আসুন বাইরে কোথাও থেকে। যারা নব্য ভালোবাসার পথিক তারা তো ভেবে নিতে পারেন সুন্দর কোনো ভালোবাসার সারপ্রাইজের আইডিয়া। আর যে কথা হয়নি বলা সেকথা বলে ফেলুন সেই বিশেষ দিনে-বিশেষ সময়ে-বিশেষ মানুষকে।

লাল গোলাপ : ভালোবাসা প্রকাশের জন্য গোলাপ ফুল এখনো সেরা। যুগ যুগ ধরেই ভালোবাসা প্রকাশ করার অন্যতম একটি মাধ্যম হলো লাল গোলাপ। লাল গোলাপ ছাড়া যেন সব উপহারই মলিন রয়ে যায়। ভালোবাসা দিবসে প্রিয় মানুষটিকে একটি লাল গোলাপ দিয়ে দিনটিকে একটু রঙিন করলে মন্দ কী! শুধু তাই নয়Ñ পরিবার কিংবা বন্ধুকেও ফুলের নান্দনিক উপহার দিয়ে চমকে দিতে পারেন।

হলুদ খামে চিঠি : চিঠির প্রচলন নেই বললেই চলে। কিন্তু ভালোবাসা দিবসে প্রেমিক বা প্রেমিকাকে আঙুলের মিহিন সেলাইয়ে লিখতে পারেন ছোট্ট প্রেমপত্র। কালো কালো অক্ষরে বুনে দিতে পারেন ভালোবাসা অমীয় সংগীত। খুব বড় চিঠি লিখতে না চাইলে লিখতে পারেন ছোট্ট প্রেমের চিরকুট।

বইমেলায় গিয়ে : চলছে প্রাণের বইমেলা। ভালোবাসা দিবসে প্রিয়জনের হাত ধরে ছুট দিতে পারেন বইমেলায়। কিনে দিতে পারেন প্রেমের কবিতার বই! বইয়ের প্রথম পাতায় ভালোবাসা জানিয়ে লিখে দিতে পারেন নিজের স্বরচিত দুয়েকটা লাইন।

চকোলেট : ভালোবাসা দিবসে প্রেমিকার জন্য বুকপকেটে করে নিয়ে যেতে পারেন তার পছন্দের চকোলেট। ভালোবাসার মানুষটির পছন্দ অনুযায়ী একটি সুন্দর চকোলেট বক্স উপহার দিয়ে ভালোবাসার সম্পকির্টকে আরও মিষ্টি করে তুলতে পারেন এই ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে। তাছাড়া বাচ্চাদের জন্য তো এটি আদশর্ উপহার! সুন্দর মোড়কে মুড়িয়ে সারপ্রাইজ গিফট হিসেবে চমকে দিন ভালোবাসার মানুষকে।

নিজের হাতে তৈরি উপহার : একটু সময় নিয়ে নিজের হাতেই বানিয়ে নিতে পারেন কাডর্, ফটোফ্রেম কিংবা অন্য কোনো সুন্দর উপহার। নিজের সৃজনশীলতা এবং রুচির সমন্বয়ে তৈরি আপনার এই উপহারটি আপনার ভালোবাসার মানুষটি পছন্দ করবেই। কাডের্র ভাষার ক্ষেত্রেও গতানুগতিক ভাষা না লিখে একটু নান্দনিক উপস্থাপন আপনার পুরো পরিশ্রমকে আরও সুন্দর করে তুলবে। হতে পারে কবিতার কোনো লাইন কিংবা নিজের আবেগের সুন্দর ছন্দময় প্রকাশ।

ভালোবাসা চিরন্তন। পরিবারের মানুষ বা কাছের মানুষকে ভালোবাসার সঙ্গে সঙ্গে ভালোবাসুন এই দেশের মানুষকেও। অবহেলিত যারা, যারা নিযাির্তত ও বঞ্চিত তাদেরও ভালোবাসা জানাতে পারেন। হয়তো কোনো পথশিশুকে দিতে পারেন ভালো একটি পোশাক বা দরিদ্র কোনো মানুষকে একবেলা খাবার। এভাবে ভালোবাসার আমন্ত্রণে প্রত্যেকের অংশগ্রহণ সাজাতে পারে ভালো একটি পৃথিবী।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে