logo
রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষেপ

শিক্ষিকার ওপর হামলা

নন্দিনী ডেস্ক

দিনে-দুপুরে স্কুল শিক্ষিকা ফাতেমা বেগমের ওপর হামলা করল তারই প্রাক্তন স্বামী। ফাতেমা বেগম হাতিয়া উপজেলার হরণী ইউনিয়নের টাংকির বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা। বৃহস্পতিবার দুপুর আনুমানিক আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। শিক্ষিকা ফাতেমার সঙ্গে থাকা অন্য দুই নারী শিক্ষকসহ আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে বিকালে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। প্রত্যক্ষদর্শী সহকারী শিক্ষিকা পলাশী রানী দাসের জবানীতে জানা যায়, দুপুর সোয়া ২টার দিকে বিদ্যালয় ছুটির পর তারা তিন শিক্ষিকা টাংকির বাজার থেকে হাতিয়া বাজারের উদ্দেশ্যে একটি ব্যাটারিচালিত ইজিবাইকে ওঠেন। ইজিবাইকটি বিদ্যালয় থেকে আনুমানিক আধা কিলোমিটার দূরে যাওয়া মাত্র ওতপেতে থাকা সহকারী শিক্ষিকা ফাতেমা বেগমের প্রাক্তন স্বামী ওমর ফারুক একটি ধারালো দা পেছন থেকে ফাতেমাকে কোপ দেন। এরপর ফারুক এলোপাতাড়ি ফাতেমাকে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে। পরে তারা মুমূর্ষু অবস্থায় ফাতেমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে দ্রম্নত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের পরামর্শ দিয়েছেন। ঘটনার পর পরই এলাকার লোকজন ঘেরাও করে শিক্ষিকার স্বামী মো. ওমর ফারুককে (৩৫) আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। ফারুক পেশায় গাড়িচালক। বছরখানেক আগে ফাতেমার সঙ্গে তার ডিভোর্স হয়ে যায়। এরপর থেকে ফাতেমা দুই সন্তান নিয়ে হাতিয়া বাজারের পাশের একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

গৃহিণীর ছাদবাগান

মনিকা আহমেদ

এখন তো ছাদে বাগান করার ক্ষেত্রে বিপস্নব চলছে বলা যায়। আর এই বিপস্নব ঘটিয়ে চলছে মেয়েরাই। অনেকেরই হয়তো জানা নেই পৃথিবীতে কিন্তু প্রথম কৃষিকাজ শুরু করেছিল একজন নারী। যা বলছিলাম, ছাদে আপনারা সব ধরনের গাছ লাগাতে পারেন। চোখ ও মনের সৌন্দর্যতার জন্য ফুল তো আছেই সেই সঙ্গে বিভিন্ন ধরনের ফল ও সবজি চাষ করা যায়। প্রাথমিকপর্যায়ে একটু খরচ হবে। যেমন মাটি আনা, সার জোগাড় করা, টব কেনা। এটা যে একদিনেই করতে হবে তা তো নয়- ধীরে ধীরেই এগোনো যায়। সবজির ক্ষেত্রে ছাদের ওপর মোটা পলিথিন বিছিয়ে তার ওপর সারের মাটি ফেলে চারদিকে কাঠের পাটাতন দিয়ে বেড়া দিতে হবে। মাটির পরিমাণ মেঝে থেকে দেড় হাত পরিমাণ উঁচু করতে হবে। ব্যাস সবজি চাষের জন্য জমি রেডি। লাগিয়ে ফেলুন আপনার পছন্দমতো যে কোনো সবজি। আর ফলের গাছ অনুযায়ী টব বেছে নিতে হবে। একটু চেষ্টা করলেই আমরা আমাদের অবহেলা ভরে পড়ে থাকা ছাদটাকে দিতে পারি প্রকৃতির সবুজ রং। এই ছাদবাগান থেকে পেতে পারি দূষণমুক্ত শাক-সবজি, পরিবারকে রাখতে পারি ফরমালিনমুক্ত! তাছাড়া এই ছাদবাগান কিন্তু হতে পারে একজন গৃহিণীর অর্থ উপার্জনের একটি সুন্দর পথ। এর জন্য শুধু দরকার গৃহিণীদের একটু শ্রম আর সবার উপরে নিজের সদিচ্ছা।

প্রশাসনের উচ্চপদে নারী

নন্দিনী ডেস্ক

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সর্বশেষ তথ্যানুসারে প্রশাসনের শীর্ষপদ সচিব ও সমপর্যায়ের ৭৭ জনের মধ্যে নারী রয়েছেন আটজন। ৪৪৪ জন অতিরিক্ত সচিবের মধ্যে নারী ৮২ জন, ৭৩৮ জন যুগ্ম সচিবের মধ্যে নারী ৮৭ জন, এক হাজার ৮০২ জন উপসচিবের মধ্যে নারী ৩৬৮ জন, ১ হাজার ৩০৫ জন সিনিয়র সহকারী সচিবের মধ্যে নারী ৩৬৮ জন ও ১ হাজার ৫১৪ জন সহকারী সচিবের মধ্যে নারী ৪৯৩ জন। এই কর্মকর্তাদের মধ্যে মাঠপর্যায়ে এখন আটজন বিভাগীয় কমিশনার ও ১৭ জন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনারের দায়িত্ব পালন করছেন। ১১ জন জোনাল সেটেলমেন্ট অফিসারের মধ্যে কোনো নারী না থাকলেও স্থানীয় সরকার বিভাগের ৫২ জন উপ-পরিচালকের ১২ জন, ডেপুটি কমিশনার (জেলা প্রশাসক) পদের ৬৪ জনের মধ্যে ৯ জন, অতিরিক্ত ডেপুটি কমিশনারের ২০২ জনের মধ্যে ২৪ জন, ৪৪ জন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার মধ্যে চারজন, ৬৫ জন অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনারের মধ্যে ২৫ জন, ২৯৮ জন এসিল্যান্ডের (অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার-ল্যান্ড) মধ্যে ১১১ জন, ১০ জন ল্যান্ড অ্যাকুইজিশন অফিসারের দুজন, ছয়জন আরডিসির (রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর) পাঁচজন, ৪৭০ জন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মধ্যে ১২২ জন, ২৬ সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনারের মধ্যে ১৫ জন, ১৮ জেলা পরিষদের সচিবের মধ্যে চারজন, ৩৬ ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মধ্যে ১২ জন এবং ১৭০ ভারপ্রাপ্ত এসিল্যান্ডের মধ্যে ৫৯ জন নারী দক্ষতা ও যোগ্যতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে