logo
রোববার ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৩১ ভাদ্র ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২৬ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০  

সন্তান নিজেকে নিয়ে মগ্ন, দায়টা কার?

সন্তান নিজেকে নিয়ে মগ্ন, দায়টা কার?
জাহিদ হাসান মিহাদ

এই পৃথিবীতে সন্তানের জন্য সবচেয়ে আপন শুভাকাঙ্ক্ষী হলো তার বাবা-মা। বাবা-মায়ের সঙ্গে কাটানো সময়টুকুই সন্তানের জন্য সবচেয়ে বেশি মধুর। সময়ের পরিক্রমায়, যুগের পরিবর্তনের প্রভাবে পৃথিবীর মানুষ ব্যস্ত হচ্ছে প্রতিনিয়ত, ব্যস্ত হচ্ছে নিজেকে নিয়ে, উন্নত জীবনের জন্য সবাই ছুটছে অনবরত! সেই স্রোতে এখন সন্তানকে নিয়ে সন্ধ্যায় একসঙ্গে আড্ডা দেয়া কিংবা কোথাও ঘুরতে যাওয়ার ফুরসত আর কই থাকে? অফিস ফেরত বাবা-মা দু'জনই যে একটু বেশিই ক্লান্ত, একটু বেশিই ব্যস্ত...।

সেই ফলশ্রম্নতিতে সন্তানের কাছে এখন বাবা-মার সঙ্গে কাটানো সময়ের মূল্য খুব বেশি থাকছে না; সন্তান বুঝতেই পারছে না বাবা-মায়ের সঙ্গে কাটানো সময়ের মূল্য কতটা! সন্তান তাই নিজেই খোঁজে নিয়েছে তার নিজেকে নিয়ে মগ্ন থাকার পথ!

আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির ছোঁয়ায় সে নিজেকে বিলিয়ে দিয়ে দিচ্ছে; প্রতিনিয়ত অনলাইনে মিশছে ভিন্ন ভিন্ন মানুষের সঙ্গে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সে এতটাই সক্রিয় হয়ে উঠছে যে, পাশের রুমের বাবা-মায়ের সঙ্গে একটু কথা বলার সময়টুকুও যেন তার হয়ে উঠছে না! এতে করে সন্তান সামাজিক শিষ্টাচার, সামাজিক মূল্যবোধ ও বাবা-মায়ের সঙ্গে প্রতিটা সন্তানের যে মধুর বন্ধনের আত্মিক সম্পর্ক থাকে সেটা তারা উপলব্ধিই করতে পারছে না। পাশাপাশি সন্তানের স্বাভাবিক বিকাশও বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে; সন্তান অনেক বেশি আত্মকেন্দ্রিক হয়ে উঠছে।

এই পৃথিবীতে বাবা-মায়ের জন্য সবচেয়ে বড় সম্পদ হলো তার সন্তান! তাই যত ব্যস্ততাই থাকুক না কেন, সন্তান যেন প্রতিটা বাবা-মা থেকে পরিমিত সময় পায় সে দিকে সবার আগে খেয়াল রাখা উচিত। কেননা, যে সন্তানের জন্য বাবা-মায়ের এত পরিশ্রম, এত ত্যাগ; দিনশেষে সে সন্তানের স্বাভাবিক বিকাশটাই তো সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে