logo
রোববার ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫

  নন্দিনী ডেস্ক   ০১ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০  

দেশের ৮০ শতাংশ নারী মানসিক নিযার্তনের শিকার

সম্প্রতি একটি গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশের ৮০ শতাংশ নারী মানসিক নিযার্তনের শিকার। এমনকি যেসব নারী উপাজর্ন করে সংসারে অবদান রাখছেন, তাদের মধ্যে ১০ থেকে ২০ শতাংশ মানসিক নিযার্তনের শিকার হচ্ছেন। নারীর প্রতি সমাজের নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গির কারণে এমনটা হচ্ছে বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা। আজকাল সংসারে স্ত্রীর অবদান আছে কি নেই, তা পুরুষের কাছে বিবেচ্য নয়। অনেক শিক্ষিত পুরুষ মনে করেন, গায়ে হাত না তুললেই কেবল নিযার্তন হয় না। কিন্তু মানসিক নিযার্তনটা একজন নারীর জন্য আরও ভয়াবহ ব্যাপার। সন্তানের ওপরও এর ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে। যদিও গ্রামাঞ্চলে দেখা যায়, রোজগার করা নারীর ওপর নিযার্তনটা অপেক্ষাকৃত কম হচ্ছে। কিন্তু শহরে শিক্ষিত উচ্চবিত্ত পরিবারে মানসিক নিযার্তনের মাত্রা কিন্তু বেশি বৈ কম নয়। শিক্ষার অভাবে এখনও অনেক নারীই জানেন না কোথায় গিয়ে মামলা করতে হয়। মামলা করতে কত টাকা লাগে। শিক্ষিত হলেই নারী তার অধিকার সম্পকের্ সচেতন হবেন। সচেতন না হলে তাদের ওপর নিযার্তনের মাত্রা বাড়তেই থাকবে দিনদিন। পৃথিবীর ইতিহাসে নজর রাখলে স্পষ্ট হয়, নারীসমাজ নিজেদের উপযুক্ত করে গড়ে তুলতে সত্য ও সুন্দর শিক্ষাকে অঁাকড়ে ধরেছিলেন। তাই তাদের গভের্ জন্ম নেওয়া সন্তানাদি পৃথিবীতে চোখ খুলেই আদশর্ ও নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে উঠেছিলেন। তারাই পরবতীের্ত বিশ্বনন্দিত ব্যক্তিত্বে পরিণত হয়ে বিশ্বকে আদশের্র শিক্ষা দিয়েছেন। অতীতের সোনালি দিনে যারা দেশ-জাতির নেতৃত্ব দিয়েছেন, তারা সবাই মায়েদের আদশির্ক ধারার বলিষ্ঠ শিক্ষার গুণেই আজও স্মরণীয় হয়ে আছেন। এ জন্য নারীদের আদশর্ নারী হিসেবে গড়ে তুলতে শিক্ষার বড় প্রয়োজন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে