logo
বুধবার ২৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬

  আলীজা ইভা   ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০  

ফাগুনের ভালোবাসায় তারুণ্য

ফাগুনের ভালোবাসায় তারুণ্য
ফাগুনে তরুণ প্রজন্মের মাঝে উচ্ছ¡াস কাজ করে ছবি : ইন্টারনেট
মনে রাখতে হবে ভালোবাসা শুধু এক দিনের নয়। সারা জীবনের। তাই এ দিনটি সামনে রেখে দুজনে মিলে কিছু কিছু বিষয়ে নতুন করে প্রমিজ করতে পারেন। এতে দুজনের ভালোবাসা আরো মজবুত হবে এবং আগামী দিনগুলো ভালোবাসায় পরিপূণর্ থাকবে।

চট করে হিসাব করলে বিষয়টাকে সেকেলে মনে হতে পারে। কিন্তু এটাই হতে পারে একটা চমক। তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে সবই চলে অনলাইনে। স্বাভাবিক সব বিষয়ের তুলনায় চিঠি হতে পারে একটা বড় সারপ্রাইজ। যে কথাগুলো মুখে বলতে পারেন না সেগুলো অল্প কথায় সুন্দরভাবে সাজিয়ে লিখে ফেলুন। এরপর গাঢ় রঙের সবুজ, নীল অথবা গোলাপি একটা খামে কঁাচা গোলাপ পাপড়ি ছড়িয়ে দিয়ে প্যাকেট করুন।

ভালোবাসা দিবস খুব বিশেষ একটা দিন যা বছরে একবারই আসে। এ বিশেষ দিনে সবাই তাদের সবচেয়ে বিশ্বের সবচেয়ে বেশিবার উচ্চারিত শব্দগুলোর একটি সম্ভবত ‘ভালোবাসা’। অবশ্য এর নানা প্রকরণ রয়েছে। বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে ভালোবাসাকে ভাগ করা যায়। এর মধ্যে পরিবার-পরিজন, বন্ধু-বান্ধব, ধমীর্য় কিংবা প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে ভালোবাসা। তাই বলা চলে ভালোবাসা কেবল প্রেমিক-প্রেমিকার জন্যই নয়। মা-বাবা, স্বামী-স্ত্রী, ভাই-বোন, প্রিয় সন্তান, পরিবার, সমাজ এমনকি দেশের জন্যও ভালোবাসা হতে পারে।

তবে আবেগধমীর্ ভালোবাসা সাধারণত গভীর হয়, বিশেষ কারো সঙ্গে নিজের সব অনুভ‚তি ভাগ করা, এমনকি শরীরের ব্যাপারটাও এ ভালোবাসা থেকে পৃথক করা যায় না।

প্রিয় মানুষটিকে খুশি করার জন্য নানা ধরনের পরিকল্পনা গ্রহণ করে থাকে। তাই যখন ভালোবাসা দিবসে আপনারা আপনাদের প্রেমিক কিংবা প্রেমিকার সঙ্গে বাইরে যান, তখন স্বাভাবিকভাবেই আপনার চেষ্টা থাকে কীভাবে নিজেকে খুব সুন্দরভাবে উপস্থাপন করা যায়। ইতোমধ্যে আপনি নিশ্চয় পরিকল্পনা করে ফেলেছেন ভালোবাসা দিবসে আপনি কী করবেন, তাই না? এ ক্ষেত্রে দুটি বিষয় হতে পারে। হয় আপনি এ বিশেষ দিনে কী ধরনের পোশাক পরবেন, তা নিয়ে ভাবছেন কিংবা এ ব্যাপারে আপনি কোনো কিছু চিন্তাই করছেন না। যেহেতু সে আপনাকে ভালোবাসে, তাই ভাবছেন বিশেষ কিছু করার কোনো প্রয়োজন নেই। কিন্তু এ বিশেষ দিনে বিশেষভাবে তৈরি হওয়ার প্রয়োজনীয়তা আছেই। এ ভালোবাসার দিনে চমকে দিন আপনার ভালোবাসার মানুষটিকে এক অনন্য সাজে সেজে, দেখবেন আপনার ভালোবাসার মানুষটি একে দারুণ উপভোগ করবে।

মোবাইল ফোন বা অবাধ তথ্যপ্রযুক্তির যুগে প্রেম-ভালোবাসার ক্ষেত্রে যোগাযোগের বিষয়টি সহজলভ্য হলেও পাল্টে যাচ্ছে ভালোবাসার ধরন ও সংজ্ঞা। আবেগী পবিত্র ভালোবাসার ঘরে প্রবেশ করছে যৌনতা। এর পরও ভালোবাসার আবেদন কমেনি এতটুকু। আর কমেনি বলেই দিবস ঘিরে এত আয়োজন, এত আহাজারি।

অনেকেই দ্বিধায় থাকেন ভালোবাসা দিবসের পোশাক নিয়ে। ভালোবাসা দিবস খুব বিশেষ একটা দিন যা বছরে একবারই আসে। এ বিশেষ দিনে সবাই তাদের সবচেয়ে প্রিয় মানুষটিকে খুশি করার জন্য নানা ধরনের পরিকল্পনা গ্রহণ করে। তাই যখন ভালোবাসা দিবসে আপনারা আপনাদের প্রেমিক কিংবা প্রেমিকার সঙ্গে বাইরে যান, তখন স্বাভাবিকভাবেই আপনার চেষ্টা থাকে কীভাবে নিজেকে খুব সুন্দরভাবে উপস্থাপন করা যায়।

প্রেম দিবসের প্রচলিত লাল পোশাক নাকি অন্য রকম কিছু, সনাতনী শাড়ি? নাকি সাহসী কোনো পোশাক। যদি সারা দিনের জন্য বের হওয়ার পরিকল্পনা থাকে তাহলে অবশ্যই ক্যাজুয়াল পোশাকেই মনোনিবেশ করুন। যদি রাতে রোমান্টিক ডিনারে যাওয়ার পরিকল্পনা থাকে তাহলে শাড়ি পরতে পারেন। আর যদি নাইট আউটের কথা ভেবে রাখেন তাহলে সব থেকে উপযোগী শটর্ ড্রেস। তবে সবটাই বাছতে হবে নিজের চেহারা ও সেদিনের আবহাওয়ার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে। ঝলমলে রোদ, হালকা শীত, বসন্তের আগমনী বাতার্ ও সবোর্পরি প্রেমকে মাথায় রেখে অনুজ্জ্বল রঙে দিন এড়িয়ে যাওয়াই ভালো। সুন্দর রঙে নিজেকে সুন্দরভাবে সাজিয়ে তুলুন।

মনে রাখবেন, প্রেম মানেই প্যানশন। আর তাই ভালোবাসার রং বললেই মাথায় আসে লাল। যদি আপনার পছন্দের তালিকায় লাল থাকে তাহলে অবশ্যই লাল পরতে পারেন। সারা দিন ঘোরাঘুরি বা লং ড্রাইভে যেতে হলে জিন্সের সঙ্গে লাল হাইনেক পুলোভারের কোনো তুলনা নেই। যদি ঠাÐা কম থাকে তাহলে সাদা বা হালকা রঙের কোনো টপের ওপর জড়িয়ে নিতে পারেন লাল স্কাফর্। শীতের কম-বেশি তারতম্য অনুযায়ী লাল স্টোলও ব্যবহার করতে পারেন।

যদি আপনার চেহারা মেদহীন হয় তাহলে সাদা ফলিং শোল্ডার টপের কঁাধ থেকে উঁকি মারতে পারে লাল লজারি। তবে ভালোবাসা দিবস বলে শুধু লালেই আটকে থাকবেন না। যে কোনো উজ্জ্বল রংই এই সময়ের জন্য এবং প্রেমের জন্য ভালো। পছন্দমতো হালকা গোলাপি, উজ্জ্বল হলুদ, পাপর্ল, সুন্দর নীলÑ যে কোনো রঙের পোশাকই আপনি পরতে পারেন। তার সঙ্গে মানানসই জুতা, ব্যাগ, অ্যাক্সেসরিজ নিলেই সাজ সম্পূণর্।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে