logo
মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬

  উনিশ-বিশ ডেস্ক   ১২ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

গানের ভুবনে আমন্ত্রণ

তরুণদের জন্য একটি শিক্ষণীয় বিষয় এটা হতে পারে যে, টেইলর সুইফট এত খ্যাতি অজর্ন সত্তে¡ও নিজের ভেতরে অহংবোধকে প্রশ্রয় দেননি। বরং মানবসেবার দিকে অনেক বেশি মনোযোগী হয়েছেন। যেমন টেইলর সুইফট রেডক্রসের ডিজাস্টার ফান্ডে অথর্ দান করেছেন। ইন্টারনেট সেক্স ক্রাইমের বিপক্ষে লড়ে যাচ্ছেন সেই ২০০৭ সাল থেকে। বন্যা ও ক্যান্সার আক্রান্তদের দান করেছেন বিপুল অথর্।

সবকিছু মিলিয়ে ক্রিয়েটিভ এ তরুণী আসলেই এ পৃথিবীর একজন সম্পদ। আমাদের দেশেও তার অসংখ্য ভক্ত রয়েছে।

টেইলর সুইফট ১৯৮৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভেনিয়ায় জন্মগ্রহণ করেন। খুব ছোটবেলায় কবিতা লিখে স্কুলে পুরস্কার পেয়েছিলেন টেইলর। ১০ বছর বয়সে একজন কম্পিউটার মেরামতকারীর কাছ থেকে শিখেছিলেন কিভাবে গিটার বাজাতে হয়। ১২ বছর বয়সে স্কুলে সামারের ছুটিতে উপন্যাস লিখতে বসে পড়েন। তা অবশ্য কখনো প্রকাশিত হয়নি। তবে তিনি তখন থেকে নিয়মিত গান লিখে চলেছেন। এ গান লেখার ব্যাপারটি কখনো যেন থামেনি। ছোট ছোট নানা পুরস্কার জিততে জিততে একসময় হয়ে পড়েন একজন গান লেখক ও গায়িকা। শানিয়া টুইন ও ডলি পাট্রোনের গানের ভক্ত টেইলর একসময় হয়ে পড়েন তাদের উত্তরসূরি।

টেইলর সুইফটের প্রথম অ্যালবাম প্রকাশিত হয় ২০০৬ সালে। অ্যালবামের নাম ‘টেইলর সুইফট’। এরপর ২০০৮ সালে প্রকাশিত হয় ফেয়ারলেস ও ২০১০ সালে প্রকাশিত হয় স্পিক নাউ অ্যালবামটি।

গান লেখা ও গাওয়ার পাশাপাশি অভিনয়ের দিকেও পা বাড়িয়েছেন টেইলর। ভ্যালেন্টাইনস ডে, ব্রæনো দ্য রোবোটে অভিনয় করেছেন তিনি।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে