logo
  • Wed, 21 Nov, 2018

  অনলাইন ডেস্ক    ০৬ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

জেনে নিন

‘অনধিকার প্রবেশ’

‘অনধিকার প্রবেশ’
অপরের শরীর বা সম্পত্তির ওপর করা একটি বেআইনি কাজ, বিশেষত অপরের ভ‚সম্পত্তিতে অবৈধ প্রবেশ। অনধিকার প্রবেশ দুই ধরনের হতে পারেÑ ১. ব্যক্তির ওপর অনধিকার প্রবেশ এবং সম্পত্তির ওপর অনধিকার প্রবেশ। কোনো ব্যক্তির নিরাপত্তা ও স্বাধীনতাজনিত অধিকার লঙ্ঘন করা হলে তা ব্যক্তির ওপর অনধিকার প্রবেশ বলে গণ্য হয়। কোনো ব্যক্তির বৈধ মালিকানাধীন সম্পত্তির ওপর কেউ অবৈধভবে হস্তক্ষেপ করলে তা সম্পত্তির ওপর অনধিকার প্রবেশ বলে গণ্য হয়। অনধিকার প্রবেশ দেওয়ানি ও ফৌজদারি উভয় আইনেই অপরাধ। ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি দেওয়ানি আদালতে ক্ষতিপূরণের মামলা দায়ের করে অপরাধ করার অভিপ্রায়ে অথবা ভীতিপ্রদশর্ন, অপমান অথবা বিরক্ত করার জন্য বেআইনিভাবে সেখানে অবস্থান করেন, তবে তিনি এই অপরাধ সংঘটন করেছেন বলে অভিহিত হবেন। দÐবিধির ৪৪৭ ধারা থেকে ৪৬০ ধারা পযর্ন্ত অনধিকার প্রবেশের শাস্তি সম্পকের্ বলা হয়েছে। যে ব্যক্তি অপরাধমূলক অনধিকার প্রবেশ করেন, সেই ব্যক্তি তিন মাস পযর্ন্ত কারাদÐে দÐিত বা ৫০০ টাকা পযর্ন্ত অথর্দÐে বা উভয়বিধ দÐে দÐিত হবেন।

আবার উন্মুক্ত কোনো স্থানে বিশ বা ততোধিক ব্যক্তির এমন একটি জনসমাবেশ যেখানে জনসাধারণের যাতায়াতের কোনো অধিকার বা সীমিত অধিকার নেই এবং যখন তার দখলদার ওই ঘটনার জন্য কোনো সম্মতি গ্রহণ করেননি এবং যার ফলে সমাজজীবনে গুরুতর অশান্তির সৃষ্টি হয় অথবা স্মৃতিসৌধ, ঐতিহাসিক স্থাপত্য, প্রতœতাত্তি¡ক বা বৈজ্ঞানিক গুরুত্বের দালানের তাৎপযর্পূণর্ ক্ষতি হয়, তাকে ‘অনধিকার প্রবেশকারী সমাবেশ’ বলা হয়। দÐবিধির ১৪১ ধারা অনুসারে, পঁাচ বা ততোধিক ব্যক্তি ওই ধারায় উল্লিখিত সাধারণ উদ্দেশে সমবেত হলে তাকে বেআইনি সমাবেশ বলে।

সঙ্কলন: মাহবুব সুমন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে