logo
  • Thu, 18 Oct, 2018

  যাযাদি হেলথ ডেস্ক   ২১ জুলাই ২০১৮, ০০:০০  

দূর করুন এসিডিটির সমস্যা

এসিডিটি থেকে মুক্তির জন্য অনেকেই ওষুধের দ্বারস্থ হন। অথচ ওষুধ ছাড়াও রান্নাঘরের থাকা উপাদান দিয়ে এই সমস্যা সমাধান করা সম্ভব।

দারুচিনি : হজমশক্তি বৃদ্ধির জন্য দারুচিনি বেশ উপকারী একটি মসলা। এক কাপ পানিতে আধা চা চামচ দারুচিনি মিশিয়ে নিন। এটি চুলায় কয়েক মিনিট জ্বাল দিন। এটি দিনে দুই থেকে তিনবার পান করুন। এ ছাড়া স্যুপ কিংবা সালাদে দারুচিনির গুঁড়ো মেশাতে পারেন।

জিরা : পাকস্থলীর এসিডকে নিরপেক্ষ করে পেটের ব্যথা দূর করতে এবং হজমক্রিয়ায় জিরা চমৎকার কাজ করে। দেড় কাপ পানিতে এক চা চামচ করে জিরা, ধনে ও মৌরি গুঁড়া এবং সামান্য চিনি মিশিয়ে খালি পেটে খেতে পারেন অথবা এক গøাস পানিতে সামান্য জিরার গুঁড়া মিশিয়ে বা ফুটিয়ে ছেঁকে নিয়ে প্রতিবেলা খাবার পর খেতে পারেন।

অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার : এর ক্ষারধমীর্ প্রভাব পাকস্থলীর এসিডিটির সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। ১-২ চা চামচ ভিনেগার এক কাপ পানিতে মিশিয়ে খাবার আগে বা দিনে এক বা দুইবার খেতে পারেন।

আদা : আদার রস পাকস্থলীর এসিডকে প্রশমিত করতে সাহায্য করে। এসিডিটির সময় এক টুকরো আদা মুখে নিয়ে চুষলে বা এক কাপ পানিতে কয়েক টুকরো আদা দিয়ে কিছুক্ষন ফুটিয়ে রেখে খেতে পারেন কিংবা শুধু এক চা চামচ করে আদার রস দিনে ২-৩ বার খেলে এসিডিটির থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

মৌরি : পুদিনা পাতার মতো মৌরিতেও রয়েছে বায়ু নিরোধক ক্ষমতা যার ফলে খাবার হজম করতে এবং পেটের গ্যাস দূর করতে এটা বেশ কাযর্কর। ভারী ও ঝাল খাবারের পর কিছু মৌরি মুখে দিয়ে চুষতে পারেন। আবার এক বা দুই চা চামচ মৌরি এক কাপ গরম পানিতে দিয়ে কিছুক্ষণ রেখে ছেঁকে নিয়ে দিন।

লবঙ্গ : লবঙ্গ পাকস্থলীর এসিডিটি ও গ্যাস দূর করতে পারে এর বায়ু নিরোধক ক্ষমতার জন্য। ২-৩টি লবঙ্গ মুখে নিয়ে চুষলে বা সমপরিমাণ এলাচ ও লবঙ্গ গুঁড়ো একসফঙ্গ মিশিয়ে খেলে এসিডিটির জ্বালা এবং মুখের দুগর্ন্ধ দূর হয়।

ঠাÐা দুধ : দুধে থাকা ক্যালসিয়াম পাকস্থলীতে এসিড তৈরিতে বাধা দেয়। শুধু এক গøাস ঠাÐা দুধ পান করেই এসিডিটির সমস্যা প্রতিরোধ বা উপশম করা সম্ভব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

উপরে