logo
শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ০৭ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০  

মনোরম পরিবেশ সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং

ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

মনোরম পরিবেশ সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং
য় রায়হান শরীফ

পৃথিবীর প্রাচীনতম ইঞ্জিনিয়ারিং বলতে গেলে যে বিষয়টি আসে তা হলো সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বা পুরকৌশল। সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং সভ্যতার শুরু থেকেই বিস্তার লাভ করে আসছে। এমন কোনো জায়গা নেই যেখানে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারদের ছোঁয়া লাগেনি। সবচেয়ে পুরাতন, বড় এবং সব প্রকৌশল জ্ঞানের সমন্বয় এই সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং। সুউচ্চ ভবন, হাইওয়ে, ব্রিজ, পানি প্রকল্প, পাওয়ার পস্নান্ট ইত্যাদি পরিকল্পনা, ডিজাইন, গঠন এবং রক্ষণাবেক্ষণ করার কাজ করেন সিভিল ইঞ্জিনিয়ার। সিভিল ইঞ্জিনিয়ার জরিপের কাজ করে থাকে, প্রযুক্তিগত প্রতিবেদন দেয়, এমনকি প্রকল্প ব্যবস্থাপকের কাজও করে থাকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ার।

বর্তমান বিশ্বে শিক্ষাদীক্ষার বিষয়ে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বা পুরোকৌশল বিদ্যা গুরুত্ব বহন করছে এবং এর চাহিদাও উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর চাহিদার কথা মাথায় রেখে এ কোর্স চালু করেছে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। ১৯৯৫ সালে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে এ ইউনিভার্সিটির ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা ৭ হাজারের অধিক। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ৪ শতাধিক শিক্ষার্থী এখানে অধ্যয়ন করছে।

সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সটির তত্ত্বাবধানে রয়েছেন অধ্যাপক গণেশচন্দ্র রায়। তিনি জানান, এ কোর্সের জন্য উন্নত গ্রন্থাগার ম্যাটেরিয়ালস ল্যাব, সার্ভেইং ল্যাব, কম্পিউটার ল্যাব, এনভায়রনমেন্ট ল্যাব চালু করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, ছাত্রছাত্রীরা যাতে একজন পেশাদার প্রকৌশলী হিসেবে গড়ে উঠতে পারে তার জন্য এখানে সব ধরনের শিক্ষাদান দেয়া হবে। যাতে তারা বর্তমান কর্মক্ষেত্রের প্রতিযোগিতার বাজারে টিকিয়ে থাকতে পারে।

বিএসসি ইন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স ফি ধরা হয়েছে মাত্র ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা। সান্ধ্যকালীন কোর্সের জন্য ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

এ ইউনিভার্সিটির বিশেষত্ব হলো, বিভিন্ন সামাজিক ও মানবকল্যাণকর কাজে অংশগ্রহণ। যেমন সামাজিক, ব্যবসা, অ্যান্টি-ট্যোবাকো সেলের কার্যক্রম পরিচালিত করছে। পাশাপাশি উন্নত মানসিকতা গড়ে তুলতে ছাত্রছাত্রীদের বিভিন্ন সেমিনার ও সিম্পোজিয়ামে অংশগ্রহণ করানো হয়, দেশে এবং দেশের বাইরে। মুক্তবুদ্ধি চর্চার জন্য তারা বিতর্ক প্রতিযোগিতায়ও অংশগ্রহণ করে থাকে। যেমন ২০১৭ আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় এটিএন বাংলা পার্লামেন্ট ডিবেট প্রতিযোগিতায় ফাইনালে বিজিএমইএ বিশ্ববিদ্যালয়কে হারিয়ে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি চ্যাম্পিয়ন হয়।

এখানকার সব শিক্ষার্থীদের ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ কোর্সকে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এখানে রয়েছে ৩টি সুসজ্জিত ও সমৃদ্ধ লাইব্রেরি, ইন্টারনেট এবং অত্যাধুনিক মানসম্পন্ন ৩১টি ল্যাবরেটরি সুবিধা। ছাত্রছাত্রীদের আবাসিক সমস্যা দূরীকরণের লক্ষ্যে স্থায়ী ক্যাম্পাসের কাছেই রয়েছে ৭টি হোস্টেল। এ ছাড়া রয়েছে হিউম্যান রাইটস অ্যাডভোকেসি সেল, সোস্যাল বিজনেস একাডেমিক সেল, ডিবেটিং ক্লাব, কালচারাল ক্লাব, স্পোর্টস ক্লাব, ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাব, পরিবহন সুবিধা, স্বাস্থ্যসেবা সুবিধা।

স্থায়ী ক্যাম্পাস, সাঁতারকুল, বাড্ডা, ঢাকা। মোবাইল: ০১৯৩৯৮৫১০৬০৬৬, গ্রিনরোড, ঢাকা-১২০৫। মোবাইল : ০১৬১১৩৪৮৩৪৪ বাড়ি-০৪, সড়ক-০১, বস্নক-এফ, বনানী, ঢাকা-১২১৩। মোবাইল: ০১৯৩৯৮৫১০৬১, ঊ-সধরষ: ধফসরংংরড়হ@ফরঁ.হবঃ.নফ ডবনংরঃব: িি.িফরঁ.ধপ ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ২০১০-এর আইন অনুযায়ী, দরিদ্র, মেধাবী ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের বৃত্তি দেয়া হয়। এ ছাড়া যারা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় সর্বোচ্চ নম্বরপ্রাপ্তদের বিনা বেতনে অধ্যয়নের সুযোগ রয়েছে। সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে ভর্তিকৃত ছাত্র আমিনুল ইসলাম বলে, এখানে ভর্তি হয়ে খুবই ভালো লাগছে। আরও ভালো লাগছে, স্থায়ী ক্যাম্পাস ও মনোরম পরিবেশের জন্য।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে