logo
বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

পথশিশুদের পাশে ওরা

পথশিশুদের পাশে ওরা
আফফান ইয়াসিন

পথশিশু নামটি শুনলেই কেমন রানাদের কথা মনে পড়ে যায়। তবে দেশের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা সব রানাদের কথাই আমাদের বিবেচনা করতে হবে। না হলে অযত্নে বেড়ে ওঠা এই রানারা এক সময় হারিয়ে যেতে পারে মাদকের অতল গহ্বরে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের দ্বারা গঠিত সংগঠন লাভ ফর চিলড্রেন (এলএফসি)। বিভিন্ন সময়ে নানা দিবস উপলক্ষে এরকম সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সঙ্গে ভালোবাসা বিনিময় করে আসছে এটি। এরই ধারাবাহিকতায় এবার তারা ৩০ জন পথশিশুর মাঝে পোশাক বিতরণ করল।

ব্যস্ত ক্যাম্পাসের সমাজবিজ্ঞান অনুষদ সংলগ্ন সুনামি গার্ডেনের সামনে দেখা মেলে এই উদ্যোগ গ্রহণকারী শিক্ষার্থী ও কিছু পথশিশুর। কৌতূহলী হয়ে জানতে চাইলে জানালো, তারা বিভিন্ন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তাদের সংগঠন সবার মধ্যে সম্প্রীতি ছড়িয়ে দেয়ার লক্ষ্যে ঠিক ১ বছর আগে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। আরও জানা যায়, সংগঠনটির কোনো কমিটি ও আলাদা ফান্ডিং নেই। প্রত্যেক সদস্য নিজেরাই চাঁদা দিয়ে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করে আসছে।

এদিকে ভালোবাসায় সিক্ত নতুন পোশাক হাতে পথশিশু সায়মা আক্তার জানায়, আমার খুব ভালো লেগেছে। আমি এর আগে কখনো এত আনন্দ পাইনি। আমার বাবা নেই আমি এখন দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ি। বাড়িতে গিয়ে মাকে বলব আমিও বড় হয়ে এই ভাইয়াদের মতো যেন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে পারি। মঞ্জু নামের আরেক শিশু জানালো, আপু-ভাইয়ারা আমাদের খুব আদর করেছে। এর আগে তারা আমাদের ফুল, চকোলেট ও স্কুল ব্যাগ দিয়েছে। আমি আজকে পোশাক পেয়ে খুব খুশি।

এই কার্যক্রমের উদ্যোগ গ্রহণকারী রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের (১৭-১৮) শিক্ষাবর্ষের কয়েকজন শিক্ষার্থী হলেও পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা এতে যুক্ত হয়। উদ্যোক্তাদের বক্তব্য মতে, বঞ্চিত শিশুদের মধ্যে ভালোবাসা ছড়িয়ে দিতে আমরা এ ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। হয়তো আমাদের আজকের আয়োজন খুব বড় না তবে আমাদের বিশ্বাস একদিন আরও বড় পরিসরে বঞ্চিত শিশুদের পাশে দাঁড়াবো।

শুধু বিশ্ববিদ্যালয় কিংবা স্কুল, কলেজের শিক্ষার্থীরা নয়- সমাজের বিত্তবানদেরও উচিত সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের কল্যাণে এ ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করা। এছাড়া বিভিন্ন দানশীল ব্যক্তি বা সংস্থা তাদের কার্যক্রমে সহযোগী হবে বলেও তারা আশা ব্যক্ত করেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে