logo
সোমবার ১৭ জুন, ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬

  স্বকৃত গালিব   ০৯ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০  

আইন বিষয়ে পড়াশুনা

আইন বিষয়ে পড়াশুনা
বাংলাদেশসহ পৃথিবীর সব দেশের জন্য খুবই গুরুত্বপূণর্ একটা অধ্যায়নের বিষয় আইন। আক্ষরিক অথের্ ইংরেজি প্রতিশব্দ জুরিসপ্রæডেন্সের বাংলা অথর্ হলো আইনবিজ্ঞান, ব্যবহার-তত্ত¡, আইনতত্ত¡ বা আইনবিদ্যা। ল্যাটিন শব্দ জুরিসপ্রæডেন্টটিয়া শব্দ থেকে মূলত জুরিসপ্রæডেন্স শব্দটি উদ্ভূত হয়েছে। ‘জুরিস’ অথর্ আইন এবং ‘প্রæডেন্টটিয়া’ অথর্ হলো জ্ঞান। সুতরাং জুরিসপ্রæডেন্স শব্দের অথর্ আইনের জ্ঞান বা আইন সম্পকির্ত জ্ঞান। অথার্ৎ আইন সম্পকের্ বিশেষ জ্ঞানকেই আইনবিজ্ঞান বলে।

ব্রিটিশ বিজ্ঞানী সি. কে অ্যালেন আইনবিজ্ঞান সম্পকের্ বলতে গিয়ে বলেন, আইনবিজ্ঞান হলোÑআইনের মৌলিক উপাদানগুলোর বৈজ্ঞানিক বিন্যাস বা সংশ্লেষণ বা সমন্বয়। বৈজ্ঞানিক বিন্যাস বলতে তিনি আইনের মৌলিকনীতিগুলোর একটি সুবিন্যাস্ত শ্রেণিবিন্যাস বোঝাতে চেয়েছেন। অথার্ৎ তার মতে আইনের মৌলিক উপাদানগুলোই হলো আইনবিজ্ঞানের বিষয়বস্তু।

আইনবিজ্ঞান সম্পকের্ আরও স্পষ্ট ব্যাখ্যা দেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের প্রভাষক মু. আবু বকর সিদ্দিক সোহেল, তিনি বলেন আইনের সঙ্গা এক কথায় দেয়া সম্ভব নয়। তবে প্রেক্ষাপটের ওপরে ভিত্তি করে আইনের সঙ্গা ব্যাখ্যা করা যেতে পারে। আইন হলোÑ অনেকগুলো নিয়ম-কাননের সমষ্টি, যে নিয়ম-কানন সভ্যতা টিকিয়ে রাখার জন্য দরকার। বসবাসের জন্য নাগরিকরা যে নিয়ম-কানুন মেনে সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরি করে তাকেই আইন বলে।

বাংলাদেশে ১১টি সরকারিসহ প্রায় সব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগ চালু রয়েছে। সবর্প্রথম ১৯২১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগটি চালু করা হয়। এরপর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগ চালু আছে। সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে এই বিভাগটি চালুর চিন্তা করা হচ্ছে।

আইন অনুষদের আইন বিষয়ে ভতির্ হওয়ার আগে এবং ভতির্ হওয়ার কিছুদিন পর শিক্ষাথীর্রা বেশ কিছুদিন পযর্ন্ত হতাশায় ভোগেন যে বটতলার উকিল ছাড়া জীবনে কিছু হতে পারবে না ভেবে। কারণ অনেকেই আইন এই বিষয় সম্পকের্ ঠিকমতো জানে না। তারা গতানুগতিক বিষয়ের সঙ্গে এ বিষয়কে মিলাতে পারে না। তারা মনে করেন বটতলার উকিল ছাড়া এর কোনো ভবিষ্যৎ নেই। কিন্তুু আশার কথা হলো, আইন পেশা হচ্ছে পৃথিবীর সব অভিজাত পেশার অন্যতম। আর এই অভিজাত মানুষের নামের আগে বিজ্ঞ শব্দটি ব্যবহার করতে হয়। অথার্ৎ বিজ্ঞ আইনজীবী বলার মাধ্যমে এ পেশার আভিজাত্যকে ফুটিয়ে তোলা হয় নিপুণ সৌন্দযের্। এবং আইনজীবী ছাড়াও এই বিষয়ের ক্ষেত্রে আছে বহুমুখী পেশা। আইনজীবী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করার সুয়োগ ছাড়াও রয়েছে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান, আন্তজাির্তক সংস্থা, ব্যাংক ও আথির্ক প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন দেশের দূতাবাস, বিভিন্ন বেসরকারি মানবাধিকার সংস্থা, বহুজাতিক কোম্পানি ও এনজিওতে আছে আইন কমর্কতার্ বা প্যানেল আইনজীবী হিসেবে কাজ করার সুযোগ। রয়েছে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে নি¤œ আদালতে যোগ দেয়ার সুযোগ। এ ছাড়াও বিসিএসসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি ব্যাংক ও অন্যান্য পেশায় যাওয়ার সুবণর্ সুযোগ।

কুবির নতুন এই বিভাগটি থেকে দুই বছর পর, প্রথম ব্যাচ তাদের শিক্ষাজীবন শেষ করবে। এরই মধ্যে তারা বিভিন্ন স্বেচ্ছামূলক কমর্কাÐে জড়িত হয়ে নিজেদের অভিজ্ঞ এবং বিভিন্ন চাকরিতে যোগদানের জন্য নিজেদের দক্ষ করে তুলছে। ইতোমধ্যে তারা বিভিন্ন স্বেচ্ছামূলক প্রতিষ্ঠানে নিজেদের যোগ্যতা অনুযায়ী জায়গা করে নিতে শুরু করেছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে