logo
শনিবার ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১ পৌষ ১৪২৫

  মতিয়ার রহমান   ০৭ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০  

অ¤øমধুর কামরাঙা

অ¤øমধুর কামরাঙা
কামরাঙার মূল পরিসীমা অজানা। এটি শ্রীলংকা ও ইন্দোনেশিয়া থেকে উদ্ভ‚ত বলে ধারণা করা হয়। কিন্তু বিগত কয়েক শত বছর ধরে ভারতীয় উপমহাদেশে এবং দক্ষিণ-পূবর্ এশিয়ায় এর চাষ করা হচ্ছে। সম্প্রতি পূবর্ এশিয়া এবং অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডে বেশ জনপ্রিয়তা অজর্ন করেছে। কামরাঙা অ¤øমধুর স্বাদ যুক্ত ফল। এতে প্রচুর ভিটামিন ‘এ’ ও ‘সি’ রয়েছে। কামরাঙা আমাদের দেশে সুপরিচিত ও জনপ্রিয় ফল। দেশের সবর্ত্র বাড়ির আঙিনায় ২/১টি কামরাঙা গাছ দেখা যায়। কামরাঙার ইংরেজি নাম-ঈধৎধসনড়ষধ। বৈজ্ঞানিক নাম- আবৎৎযড়ধ পধৎধসনড়ষধ.

জাত : বারিকামরাঙা-১, ২ ও বাউ কামরাঙা-১, ২, ৩ নামের বেশ কয়েকটি উচ্চ ফলনশীল জাত রয়েছে। যেগুলো গাজীপুর, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, ঢাকা, সিলেট ও পাবর্ত্য চট্টগ্রাম জেলায় বেশি উৎপন্ন হয়। তবে দেশের সবর্ত্রই কম-বেশি কামরাঙার চাষ হয়ে থাকে।

পুষ্টিগুণ : ভিটামিন ‘এ’ ও ভিটামিন ‘সি’ সমৃদ্ধ একটি পুষ্টিকর ফল কামরাঙা। প্রতি ১০০ গ্রাম খাদ্যোপযোগী কামরাঙায় ৮৮.৬ গ্রাম জলীয় অংশ, ১ গ্রাম হজম যোগ্য অঁাশ, ০.৫ গ্রাম আমিষ, ১ গ্রাম চবির্, ৯.৫ গ্রাম শকর্রা, ১১ মিলি গ্রাম ক্যালসিয়াম, ১.২ মিলি গ্রাম লৌহ, সামান্য পরিমাণে ক্যারোটিন, ভিটামিন বি১ ও ভিটামিন বি২, ৬১মিলিগ্রাম ভিটামিন সি এবং ৫০ কিলোক্যালরি খাদ্যশক্তি বিদ্যমান।

ঔষধিগুণ : পাকা ফল বাতনাশক, রক্তক্ষরণ বন্ধ করে। ফল ও পাতা গরম পানিতে সিদ্ধ করে খেলে বমি বন্ধ হয়। পাতার গুঁড়া সেবনে জলবসন্ত ও বক্রকৃমি নিরাময় হয়। কাশি ও অ্যাজমা নিরাময়ে পোড়া কামরাঙা উপকারী। ফুল কৃমিনাশক, পুরাতন জ্বরে কামরাঙার পাতা মিহি চ‚ণর্ পানির সাথে মিশিয়ে সকাল-বিকেল পান করলে উপকার হয়। কচি শুকনা কামরাঙা অশর্ রোগে বিশেষ উপকারী।

ব্যবহার : জ্যাম, জেলি, মোরব্বা, চাটনি ও আচার তৈরিতে কামরাঙা ব্যবহার করা হয়। লবণ-মরিচ দিয়ে ভতার্ বানিয়ে গরমের দিনে মজা করে খাওয়া যায়।

শেষ কথাÑ কামরাঙা একটি রফতানিযোগ্য ফল। বাংলাদেশের

পাহাড়ি অঞ্চলে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে কামরাঙা চাষের উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে।

লেখক: ঊধ্বর্তন বৈজ্ঞানিক সহকারী

আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্র, বুড়িরহাট, রংপুর
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে