logo
রোববার ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৫ ফাল্গুন ১৪২৫

  অনলাইন ডেস্ক    ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষেপ

পরিচালক সমিতির নিবার্চন পিছিয়ে গেল তারার মেলা রিপোটর্ চলতি ডিসেম্বর মাসেই শেষ হচ্ছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির বতর্মান কমিটির মেয়াদ। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সমিতির নিবার্চন হওয়ার কথা ডিসেম্বরে। ২০১৮-১৯ মেয়াদে আসবে নতুন কমিটি। তবে জাতীয় নিবার্চনের কারণে ঠিক সময়ে হচ্ছে না চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির নিবার্চন। ঠিক কবে নাগাদ হতে পারে পরিচালক সমিতির নিবার্চন? প্রশ্নের উত্তরে বতর্মান মহাসচিব বদিউল আলম খোকন বলেন, ‘জাতীয় নিবার্চনের কারণে পরিচালক সমিতির নিবার্চন পিছিয়ে গেছে। যেহেতু ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় নিবার্চন। তাই পরিচালক সমিতির নিবার্চন অনুষ্ঠিত হবে ২৫ জানুয়ারি।’ নিবার্চন নিয়ে পরিচালকদের মধ্যে উত্তেজনা বা আলোচনা থাকলেও এখনো তারা প্রকাশ্যে কেউ কিছু করছেন না। কারা নিবার্চন করতে পারেন সে ব্যাপারে কোনো ধারণা পাওয়া না গেলেও সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার ও মহাসচিব বদিউল আলম খোকন আবারও নিবার্চন করার ইচ্ছা পোষণ করেছেন। ২০১৮-১৯ মেয়াদের জন্য স্বপদেই নিবার্চন করবেন তারা। প্রামাণ্যচিত্র ‘একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ’ তারার মেলা রিপোটর্ বিজয় দিবস উপলক্ষে এটিএন বাংলায় ১৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৫টায় প্রচার হবে বিশেষ প্রামাণ্যচিত্র ‘একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ’। রওনক জাহানের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেছেন আমজাদ কবীর চৌধুরী। ১৯৭১ সালের সভা-সমাবেশ, মিছিল কিংবা শুধু কাগজ কলমে লিখনীর মাধ্যমে আমদের মহান বিজয় অজির্ত হয়নি। এর সঙ্গে যুক্ত ছিল রাজনীতি, সংস্কৃতি, সাহিত্য তথা সাধারণ মানুষের সরাসরি মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ এবং নানাভাবে সাহায্য সহযোগিতা করা। মুক্তিযোদ্ধাদের সাহায্য-সহযোগিতা এমনকি সমথর্ন করায় এদেশের অনেক সাধারণ মানুষকে চড়া মূল্য দিতে হয়েছে। তাদের জীবনে এমন ঘটনা ঘটেছে যা রূপকথার গল্পকেও হার মানায়। মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযোদ্ধা, সাধারণ মানুষ এবং প্রত্যক্ষদশীের্দর ঘটনার বণর্না নিয়ে নিমির্ত হয়েছে ‘একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ’ শিরোনামের প্রামাণ্যচিত্রটি। অনুষ্ঠানটির মাধ্যমে নতুন প্রজন্ম জানতে পারবে বাংলাদেশের বিজয় অজের্নর নেপথ্যে কতটা ত্যাগ শিকার করতে হয়েছে এদেশের সাধারণ মানুষকে। নাচ নিয়েই ধ্যান-জ্ঞান ববির তারার মেলা রিপোটর্ দেশীয় নৃত্যকলাকে আন্তজাির্তক পরিমÐলে উপস্থাপন করতে চান তরুণ প্রজšে§র নৃত্যশিল্পী আফরোজা সুলতানা ববি। বতর্মানে তিনি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের সংগীত শিক্ষা কেন্দ্রে নৃত্যশিক্ষক হিসেবে কমর্রত আছেন। পাশাপাশি নৃত্য নিয়ে প্রতিনিয়ত গবেষণা করছেন। তা ছাড়া নাচের কোরিওগ্রাফার হিসেবে বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে কাজ করছেন। ১৯৯২ সালে বুলবুল ললিতকলা একাডেমির (বাফা) মাধ্যমে নৃত্যে হাতেখড়ি নেন ববি। এরপর নৃত্যগুরুমাতা রাহিজা খানম ঝুনু, অনিক বোস, লিখন রায়, ফারহানা চৌধুরী ও আনিসুর রহমান হিরুর কাছে নৃত্যে তালিম নেন। ২০০৩ সালে বিটিভির তালিকাভুক্ত শিল্পী হিসেবে স্থান করে নেন ববি। ভুটানসহ বেশ কয়েকটি দেশে পারফমর্ করেছেন তিনি। নৃত্যকলায় একাধিকবার জাতীয় পুরস্কারও অজর্ন করেছেন। ববি বলেন, ‘নৃত্য হচ্ছে শিল্পের সবচেয়ে প্রাচীন মাধ্যম, যা বিশ্বের প্রতিটি মানুষের কাছে সমান জনপ্রিয়। তাই নৃত্যচচাের্ক আরও বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। দেশের নাচের সংগঠনগুলোকে একত্র করতে হবে। সবোর্পরি আমাদের দেশের নৃত্যশিল্পকে বিশ্বমানের করে তুলতে হবে। তাছাড়া আমি মনে করি, নৃত্যশিল্পে এখন পেশাদারিত্বের জায়গা তৈরি হয়েছে। অনেকেই একে পেশা হিসেবে গ্রহণও করেছেন। বিশেষ করে ছেলেমেয়েদের মধ্যে নাচের আগ্রহ তৈরি হওয়ায় নৃত্যশিক্ষার স্কুলের সংখ্যাও বাড়ছে। ওইসব স্কুলে আমার মতো নৃত্যশিল্পীরা শিক্ষকতা করছেন। তা ছাড়া এখন নৃত্যানুষ্ঠানের আয়োজনও বেশি হচ্ছে। ফলে পেশা হিসেবে নৃত্যকে প্রাধান্য দেয়া যায় বলে মনে করছি।’

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে